kalerkantho


যেসব কারণে সাকিবদের উড়িয়ে দিল নাইট রাইডার্স

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মে, ২০১৮ ১৪:৩০



যেসব কারণে সাকিবদের উড়িয়ে দিল নাইট রাইডার্স

ছবি : এএফপি

একের পর এক ম্যাচ জিতে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান দখল করে উড়ছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। কিন্তু শেষ দুই ম্যাচ হেরে তারা বেশ বড় ধাক্কাই খেয়েছে। শীর্ষস্থান হারাতে না হলেও এটা তো মানসিক একটা ধাক্কা বটেই। গতকাল শনিবার রাতে সুনীল নারাইনের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স, লিন-উথাপ্পাদের পরিণত ব্যাটিং আর তরুণ কৃষ্ণর দুর্দান্ত ডেথ ওভার বোলিং মিলিয়ে লিগ টপারদের ঘরের মাঠে হারিয়ে প্লে অফে পৌঁছেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ঠিক কোন জায়গাগুলিতে সানরাইজার্সকে টেক্কা দিল নাইটরা? দেখে নেওয়া যাক:

সুনিল নারাইন ফ্যাক্টর: প্রথমে বল হাতে ৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ১ উইকেট, আর তার পর ওপেন করতে নেমে ১০ বলে ২৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। ক্যারিবিয়ানের দুর্দান্ত অলরাউন্ড পারফরম্যান্সই দুই দলের পার্থক্য গড়ে দেয়।

কৃষ্ণের অবিশ্বাস্য স্পেল: শেষ ওভারে প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ যখন বল করতে এলেন, হায়দরাবাদ তখন ১৬৮/৫। ক্রিজে মণীশ পাণ্ডে, সাকিব। ওই ওভারে মাত্র ৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন কৃষ্ণ। দুর্দান্ত শেষ ওভার নাইটদের ম্যাচে ফিরিয়ে দেয় অনেকটাই।

সানরাইজার্সের দুর্বল মিডল অর্ডার: উইলিয়ামসন যখন আউট হলেন, হায়দরাবাদ তখন ১২৭, রান রেট প্রায় ১০। সেই অবস্থা থেকে শেষ সাত ওভারে মাত্র ৪৫ রান যোগ করে সানরাইজার্স মিডল অর্ডার। এই পজিশনের দুই ভরসা ইউসুফ পাঠান-সাকিব আল হাসানরা একেবারেই রান পাননি।

নাইটদের বড় ওপেনিং জুটি: লিন-নারাইনের দুর্দান্ত ওপেনিং কখনওই চাপে ফেলেনি নাইট রাইডার্সকে। নারাইন যখন আউট হন তখন ৩.৪ ওভারে নাইটরা ৫২ রান করে ফেলেছ। বাকি ১৭ ওভারের বেশি সময়ে ১২১ রান করাটা কখনওই চাপের হয়নি। দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি করেন ক্রিস লিন।

দুর্দান্ত মিডল অর্ডার: লিনের সঙ্গে যোগ্য সঙ্গ দেন রবিন উথাপ্পা এবং অবশ্যই ফিনিশার কার্তিক। রবিন ৪৫ করে আউট হলেও অপরাজিত ২৬ করে দলকে জিতিয়ে ফেরেন অধিনায়ক।

ক্যাচ মিস: নিজের বলে রবিন উথাপ্পার ক্যাচ ফেলেন রশিদ খান। ওই সময়ে রবিন আউট হলে ম্যাচের ফল অন্য কিছু হতেই পারত। সেই রবিনই ৩৪ বলে ৪৫ করে যান।

ফ্লপ বোলিং: যে সানরাইজার্সের বোলিংকে আইপিএলের সেরা বোলিং বলা হচ্ছিল, তারাই শনিবার রাতে ফ্লপ। এক সিদ্ধার্থ কাউল বাদে নজর কাড়তে পারেননি কেউ। ৮ ওভারে ৬৪ রান দিয়ে একটিও উইকেট পাননি দলের দুই স্ট্রাইক বোলার ভুবনেশ্বর কুমার এবং রশিদ খান। সাকিব ৩ ওভারে ৩০ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট। সব মিলিয়ে সানরাইজার্সের জন্য বেশ বাজে দিন ছিল এটি।


মন্তব্য