kalerkantho


প্রথমার্ধে সমতায় ইংল্যান্ড-তিউনিসিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জুন, ২০১৮ ০১:৩৫



প্রথমার্ধে সমতায় ইংল্যান্ড-তিউনিসিয়া

রাশিয়া বিশ্বকাপে শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে প্রথমার্ধ পর্যন্ত ঠেকিয়ে রেখেছে তিউনিসিয়া। প্রথমার্ধে পেনাল্টি গোলের সুবাদে ১-১ সমতা ধরে রেখেছে আফ্রিকার দলটি।

খেলার ৩ মিনিটের সময়ই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ এসেছিল ইংল্যান্ডের। গোল পোস্টের একেবারেই কাছ থেকে নেয়া লিঙ্গার্ডের শট দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন তিউনিসিয়া গোলরক্ষক মুয়েজ হাসেন। দুই মিনিট পরে আবার সহজ সুযোগ নষ্ট করেন রাহিম স্টারলিং। ফাঁকা গোল পেয়েও জালে বল জড়াতে ব্যর্থ হন।

গোলের জন্য অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি ইংলিশদের। ১১ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে অ্যাশলে ইয়াংয়ের কর্নারে জন স্টোনসের হেড দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন হাসেন। তবে শেষ রক্ষায় হয়নি, ফিরতি বলে পা ঠেকিয়ে সহজেই বল জালে জড়ান ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেন।

দুই মিনিট পর ঘড়ের ইনজুরির করণে মাঠই ছাড়তে হয় গোলরক্ষক হাসেনকে। তার বদলি মাঠে নামেন বেন মুসতাফা।

ম্যাচের ২৩ মিনিট প্রথম আক্রমণে আসে তিউনিসিয়া। এরপর থেকে বেশ কয়েকটি আক্রমণে ভয় ধরিয়েছে ইংলিশ রক্ষণে। ২৭ মিনিটে ডি বক্সের সামান্য বাইরে জটলার মধ্যে থেকে ফেরজানি সেসির শট পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়।

৩৩ মিনিটে ইংল্যান্ডের বক্সের মধ্যে ফখরদ্দিন বেন ইউসুফকে অবৈধভাবে বাধা দেন কাইল ওয়াকার। পেনাল্টি পেয়ে যায় তিউনিসিয়া।

শেষ পর্যন্ত ৩৫ মিনিটে বক্সের মধ্যে ফখরুদ্দিন বিন ইউসুফকে ফাউল করে বসেন কাইল ওয়াকার। মূলত. হাত দিয়েই ফখরুদ্দিনকে আঘাত করেন ওয়াকার। রেফারি সঙ্গে সঙ্গেই পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পট কিক নিতে আসেন ফেরজানি সাসি। তার বাম কোনে নেয়া শটটি ঠেকাতে ঝাঁপিয়ে পড়ে হাতও লাগিয়েছিলেন জর্ডান পিকফোর্ড। কিন্তু ঠেকাতে পারেননি। গোল হয়ে যায়।



মন্তব্য