kalerkantho


অবিশ্বাস্য! ১১ বলে ১ রান, ৭ উইকেট!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৮ ২১:৩৫



অবিশ্বাস্য! ১১ বলে ১ রান, ৭ উইকেট!

মহান অনিশ্চয়তার খেলা ক্রিকেট মাঝেমধ্যে এমন সব বিস্ময় উপহার দেয় যে মুখ হা হয়ে যায়। একটি ম্যাচের মোড় আমূল ঘুরিয়ে দেওয়ার জন্য স্রেফ একটা বলই যথেস্ট। ক্রিকেট মাঠে অনেকবারই এমন ঘটনা ঘটেছে যে, আচমকাই বদলে গেছে ম্যাচের গতি। গত রবিবারের একটি ম্যাচে এমনই ঘটনা ঘটল যা ক্রিকেটবোদ্ধাদের মাথা ঘুরিয়ে দিয়েছে।

ইংল্যান্ডের ক্লাব দল হাই ওয়াইকোম্ব সিসি জয়ের কাছে পৌঁছেও বিস্ময়করভাবে হেরে যায়। টসে জিতে প্রতিপক্ষ দল পিটারবোরো ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ওই সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণ করে হাই ওয়াইকোম্ব বোলাররা পিটারবোরোকে ৩৯.৩ ওভারে ১৮৮ রানে অল আউট করে দেয়।

জয়ের জন্য ১৮৯ রানের টার্গেটে ওয়াইকোম্বের শুরুটা ভালো হয়নি। মাত্র ১ রানেই প্রথম উইকেট হারায় তারা। বিপদ সামলে এরপর ইলিয়ট কেইলিসের ৬১ এবং নাথন হোকসের অপরাজিত ৫৯* রানে ভর করে তরতরিয়ে এগোচ্ছিল তাদের ইনিংস। জয়ের লক্ষ্যের একেবারে কাছাকাছি পৌঁছে যায় ওয়াইকোম্ব। ১৮৬ রানে ৩ উইকেট। এই অবস্থা থেকে কোনো টিম হারতে পারে, তা কেউ ধারণাও করতে পারেননি।

কিন্তু ছবিটা পাল্টে দিলেন পিটারবোরোর বোলার কায়রন জোনস। ৩৯ তম ওভারে নাটকীয়ভাবে ৪ বলে ৪ উইকেট তুলে নেন তিনি। ৪০ তম তথা ম্যাচের শেষ ওভার বোলিং করতে আসে ১৬ বছরের অফস্পিনার ড্যানিয়েল মালিক। জয়ের জন্য ওয়াইকোম্বের প্রয়োজন ছিল ৩ রানের। কিন্তু মালিকের স্পিনের ফাঁসে ওয়াইকোম্বের ব্যাটসম্যানরা একের পর এক আউট হতে থাকেন।

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে, ওই ওভারে মাত্র ১ রান তুলতে সক্ষম হয় ওয়াইকোম্বের ব্যাটসম্যানরা! হারায় ৩ উইকেট হারায় তারা। সবমিলিয়ে শেষ ১১ বলে মাত্র ১ রানে পড়ে যায় ৭ উইকেট। হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচ ২ রানে হেরে বসে ওয়াইকোম্ব। চাপ নিতে না পেরে একের পর এক উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসা ক্রিকেটে নতুন কিছু নয়। কিন্তু এই ম্যাচটিতে যা হয়েছে, তা রীতিমতো অস্বাভাবিক।



মন্তব্য