kalerkantho


রাশিয়ার টিকিট পেল ফ্রান্স-পর্তুগালও

১২ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



টানা আট ম্যাচ জিতেও পাওয়া হয়নি বিশ্বকাপের টিকিট। গতবারের মতো প্লে-অফ খেলার শঙ্কা ছিল প্রবল।

বাছাই পর্বের শেষ ম্যাচে সেই মেঘটা সরাল ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল। সুইজারল্যান্ডকে ২-০ গোলে হারিয়ে সরাসরি বিশ্বকাপে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দল। প্লে-অফ লটারি এড়িয়ে ১৯৯৮-এর চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সও বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে শেষ ম্যাচে বেলারুশকে ২-১ গোলে হারিয়ে। ২০১০ বিশ্বকাপের ফাইনাল আর গতবার সেমিফাইনাল খেলা নেদারল্যান্ডসকে জিততে হতো ৭-০ গোলে। কমলা ঝড় তুলে অলৌকিক কিছু করতে না পারায় সুইডেনকে ২-০ গোলে হারিয়েও ছিটকে গেছে ডাচরা। শেষ দিনের নাটকে বাদ পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রও। ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর কাছে ২-১ গোলে হেরে ১৯৮৬ সালের পর প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলা হচ্ছে না তাদের।

সব মিলিয়ে গত পরশু পর্যন্ত সরাসরি বিশ্বকাপ নিশ্চিত হয়েছে ২৩ দলের। বাকি ৯টি জায়গার মধ্যে চারটি ইউরোপের।

গ্রুপ রানার্স-আপ হওয়া আট দল ড্রর পর খেলবে প্লে-অফে। আফ্রিকা থেকে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলবে পাঁচ দল। নিজেদের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে টিকিট নিশ্চিত করেছে নাইজেরিয়া ও মিসর। অন্য তিন গ্রুপের তিন চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে আছে কঙ্গো, তিউনিসিয়া, আইভরি কোস্ট, মরক্কো, দক্ষিণ আফ্রিকা ও সেনেগাল।   প্লে-অফে এশিয়ার অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি হবে কনকাকাফ অঞ্চলের চতুর্থ দল হন্ডুরাসের। আর লাতিনের পঞ্চম দল পেরুর প্রতিপক্ষ ওশেনিয়া অঞ্চলের নিউজিল্যান্ড।

২০১৪ বিশ্বকাপ প্লে-অফে রোনালদোর হ্যাটট্রিকে সুইডেনকে হারিয়েছিল পর্তুগাল। এবার অবশ্য প্লে-অফের ভাগ্য পরীক্ষায় যেতে হলো না তাদের। গত পরশু লিসবনে ৪১ মিনিটে এলিয়েসুর ক্রস ডি বক্সে পেয়েছিলেন জোয়াও মারিও। সেটা আটকাতে এগিয়ে এসেছিলেন সুইস গোলরক্ষক ইয়ান সমার ও ডিফেন্ডার জোহান জুরো। কিন্তু জুরোর পায়ে লেগে সেটা জড়িয়ে যায় জালে। ৫৭ মিনিটে দারুণ দলীয় প্রচেষ্টায় হয়েছে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করা দ্বিতীয় গোলটি। মুতিনহোর ফাইনাল ক্রস বার্নান্দো সিলভা প্রথমে নিয়ন্ত্রণে নিতে না পারলেও পরে ঠাণ্ডা মাথায় জড়িয়ে দেন জালে।

পা পিছলালে ফ্রান্সও নেমে যেতে পারত প্লে-অফে। বেলারুশের বিপক্ষে ২৭ মিনিটে আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান ও ৩৩ মিনিটে অলিভার জিরদের গোল স্বস্তি এনে দেয় তাদের। ৪৪ মিনিটে আন্তোন সারোকা এক গোল ফেরালেও ২-১ ব্যবধানের জয়ে সরাসরি বিশ্বকাপের টিকিট পায় দিদিয়ের দেশমের দল।

কনকাকাফ অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র মুখোমুখি হয়েছিল তলানির দল ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর। ম্যাচটা জিতলেই নিশ্চিত ছিল রাশিয়ার টিকিট। উল্টো ২-১ গোলে হেরে ৩২ বছর পর বিশ্বকাপ খেলা হচ্ছে না তাদের। একই দিনে হন্ডুরাস শক্তিশালী মেক্সিকোকে ৩-২ গোলে হারিয়ে পেয়ে যায় প্লে-অফের টিকিট। আর পানামা তো সরাসরি বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে কোস্টারিকাকে ২-১ গোলে হারিয়ে। এএফপি

কে কোথায়

স্বাগতিক : রাশিয়া।

এশিয়া : ইরান, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, সৌদি আরব।

আফ্রিকা : নাইজেরিয়া, মিসর।

কনকাকাফ : মেক্সিকো, কোস্টারিকা, পানামা।

লাতিন : ব্রাজিল, উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা, কলম্বিয়া।

ইউরোপ : ফ্রান্স, পর্তুগাল, জার্মানি, সার্বিয়া, পোল্যান্ড, ইংল্যান্ড, স্পেন, বেলজিয়াম, আইসল্যান্ড।

প্লে-অফ : অস্ট্রেলিয়া, হন্ডুরাস, পেরু, নিউজিল্যান্ড, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড, রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড, ডেনমার্ক, ইতালি, গ্রিস ও ক্রোয়েশিয়া।

যারা নেই : নেদারল্যান্ডস, ওয়েলস, চেকপ্রজাতন্ত্র, রোমানিয়া, হাঙ্গেরি, ইউক্রেন, চিলি, প্যারাগুয়ে, ক্যামেরুন, ঘানা, যুক্তরাষ্ট্র, আরব আমিরাত, ইরাক ও চীন।


মন্তব্য