kalerkantho


ছোটদের বিশ্বকাপ শুরু

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ছোটদের বিশ্বকাপ শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শিরোপার দাবিদার ছিল বাংলাদেশ। তবে দুই বছর আগে দেশের মাটিতে হওয়া অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ অভিযান তৃতীয় হয়ে শেষ হয় মেহেদি হাসান মিরাজের দলের। যুবাদের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা অর্জন এটাই। আজ নিউজিল্যান্ডে শুরু হতে যাওয়া অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ১২তম আসরে কত দূর যাবে সাইফ হাসানের দল? নিউজিল্যান্ডের কঠিন কন্ডিশনে সেই অভিযান শুরু নামিবিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। গ্রুপ ‘সি’র অপর দুই দল কানাডা ও ইংল্যান্ড। নিজেদের গ্রুপে আইসিসির সহযোগী দুই দলকে হারালেই অবশ্য কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত বাংলাদেশের। এ ছাড়া আজ উদ্বোধনী দিনে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান মুখোমুখি হচ্ছে আফগানিস্তানের। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিদ্বন্দ্বী স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড আর পাপুয়া নিউগিনি খেলবে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে।

এবারের আসর শুরুর আগে বাংলাদেশ বড় ধাক্কা খেয়েছে প্রস্তুতি ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে ৫৬ রানে হেরে। পাকিস্তানের বিপক্ষে অপর ম্যাচটি ভেসে যায় বৃষ্টিতে। তার পরও নামিবিয়াকে ভয় পাওয়ার কারণ নেই। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দুই দলের পাঁচবারের দেখায় সব ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। গত আসরে নামিবিয়াকে ৬৫ রানে গুটিয়ে মেহেদি হাসান মিরাজের দল ৮ উইকেটে জিতেছিল ১৬ ওভারেই। সেই বিশ্বকাপে খেলা সাইফ হাসান এবার অধিনায়ক বাংলাদেশের। রয়েছেন পিনাক ঘোষও। ২১ প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৩ সেঞ্চুরি ৮ ফিফটিসহ সাইফের ব্যাটিং গড় ৪৭.৯২। ক্রাইস্টচার্চে আফগানিস্তানের কাছে হারা ম্যাচটিতে সাইফ ৪৩ ও পিনাক করেছিলেন ৫৪। এ ছাড়া বিপিএলে ২১ রানে ৫ উইকেট নেওয়া অলরাউন্ডার আফিফ হোসেনকে এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান মনে করেন বাংলাদেশের কোচ ড্যামিয়েন রাইট। আজ নামিবিয়ার বিপক্ষে শুভ সূচনার লক্ষ্যেই তাই বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ শুরুর আগেই আলোচনায় আফগানিস্তানের বাহীর শাহ ও পাকিস্তানের শাহীন আফ্রিদি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাহীর শাহর রান গড় ডন ব্র্যাডম্যানের চেয়েও বেশি! অন্তত এক হাজারের বেশি রান করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ১২১.৭৭ গড়টা সর্বকালের সেরা। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেকে করেছিলেন ২৫৬ রান। এর পাঁচ ইনিংস পরই করেন প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি। সেই বাহীরকে থামানোর চ্যালেঞ্জ পাকিস্তানের ৬ ফুট ৬ ইঞ্চি লম্বা পেসার শাহীন আফ্রিদির। কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে অভিষেকে ৩৯ রানে ৮ উইকেট নিয়েছিলেন বাঁ-হাতি এই পেসার, যা প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পাকিস্তানিদের সেরা পারফরম্যান্স। আজ বিশ্বকাপ অভিষেকেও এমন কোনো ঝলক দেখানোর অপেক্ষায় বাহীর ও শাহীন।


মন্তব্য