kalerkantho


সেই নাচ আর ছক্কা নিয়ে মুশফিক

১৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সেই নাচ আর ছক্কা নিয়ে মুশফিক

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের অসাধারণ জয় অনেকের চোখেই পরিয়েছে বিস্ময়ের কাজল! সেই দলের বাইরে নন খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসানও। মুশফিকের অমন মারকুটে ব্যাটিং দেখে ম্যাচের পর তিনি মুশফিককেও জানিয়েছেন নিজের বিস্ময়ের কথা। কাল ঐচ্ছিক অনুশীলনের আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মুশফিক জানালেন, প্র্যাকটিসে ব্যাটিং দেখলে হয়তো অবাক হতেন না বোর্ড সভাপতি।

সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব মাঠে কাল ছিল বাংলাদেশের ঐচ্ছিক অনুশীলন। আগের তিন দিন, অর্থাৎ শুক্র, শনি ও রবিবার এখানেই ছিল ‘দ্য বিগ ম্যাচ’, রয়্যাল কলেজ আর সেইন্ট থমাস কলম্বোর বার্ষিক ক্রিকেট দ্বৈরথ, যেটা চলে আসছে ১৩৯ বছর ধরে। তিন দিন ধরে লোকে লোকারণ্য হয়ে থাকা এসএসসি কাল জনশূন্য। সারা দিনের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি থামিয়ে রেখেছিল চন্দিকা হাতুরাসিংহের সাবেক ক্লাব মুরস ক্রিকেট ক্লাবের সঙ্গে সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাবের ম্যাচ, যে দুই দলে সচিত্রা সেনানায়েকে, চামারা কাপুগেদারার মতো বেশ কয়েকজন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারও খেলছেন। সাপ্তাহিক ছুটির পর প্রথম কর্মদিবস বলেই হয়তো মাঠ ফাঁকা। তবে মাঠে রয়ে গেছে বিগ ম্যাচের পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন। পাশের নেটেই ঐচ্ছিক অনুশীলনে এসেছিলেন দলের বেশির ভাগ সদস্য। আসেননি তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, তাসকিন আহমেদ আর রুবেল হোসেন। হালকা স্ট্রেচিং আর ফুটবল খেলে গা গরম করতে না করতেই বৃষ্টি বেড়ে যাওয়ায় অনুশীলন খুব একটা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। তবে ফুটবল খেলতে মাঠে নেমে পড়ার আগেই মুশফিক জানিয়ে গেলেন, কেটে গেছে ড্রেসিংরুমের বদ্ধ হাওয়াটা, ‘সবাই আমরা খুব করে চাইছিলাম একটা ম্যাচ জিততে, যেটা দেশ ছাড়ার আগেও বলে এসেছিলাম। এখন আমিসহ বাকি সবাই চাইছি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাসটা কাজে লাগাতে। টি-টোয়েন্টির মতো সংক্ষিপ্ত সংস্করণে ছন্দটা খুঁজে পাওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আমরা সেটা পেয়েছি, এখন সেটা আমাদের ধরে রাখতে হবে।’ ম্যাচ জেতানো ইনিংসটার শেষ পথে এসে পেশিতে টান ধরেছিল মুশফিকের, রান নিচ্ছিলেন খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে। তাঁর কাছ থেকেই জানা গেল এখন সব ঠিক হয়ে গেছে, ‘খুব কষ্ট হচ্ছিল শেষ দিকে। তবে এখন সব ঠিক হয়ে গেছে। কিছু ওষুধ, স্যালাইন আর দুই দিনের বিশ্রামে ঠিকই সেরে উঠব।’ মুশফিকের জয় উদ্‌যাপন নিয়ে কৌতূহল ভিনদেশি গণমাধ্যমেও। ‘নাগিনা’ খ্যাত চিত্রনায়িকা শ্রীদেবীর মৃত্যুর সঙ্গে মুশফিকের এই উদ্‌যাপনের কোনো সম্পর্ক আছে কি না, এসব নিয়েও নাকি আলোচনা চলছে! তামিম ইকবাল ম্যাচের পর সংবাদ সম্মেলনে ব্যাপারটা খোলাসা করলেও এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনা কমছিল না। ভিনদেশি সাংবাদিককে তাই মুশফিককেই খুলে বলতে হলো, ‘খুব চিন্তাভাবনা করে কিছু করিনি। হঠাৎ করেই এ রকম করলাম। আমাদের অপু (নাজমুল হোসেন) উইকেট পেলে এভাবে উদ্‌যাপন করে, আমিও জেতার পর তাই করলাম।’

মুশফিকের উদ্‌যাপন নিয়ে যেমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে নানা আলোচনা, তেমনি ‘জনপ্রিয়’ হয়ে উঠেছে বোর্ড সভাপতির মন্তব্যও। মুশফিক যে এভাবে ছয় মারতে পারেন, সেটা নাকি তিনি জানতেনই না! অথচ সীমিত ওভারের ক্রিকেটে, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে মুশফিকের ছক্কা ৮৪টি (৬২+২৬)! মুশফিক জানালেন, কিছুদিনের খারাপ পারফরম্যান্স আর অনুশীলন না দেখা থেকেই নাজমুলের অমন ভুল ধারণা, ‘এখন হয়তো তিনি জানবেন যে এত বড় ছক্কা মারতে পারি। আসলে উনি হয়তো অন্যভাবে বলেছেন। আসলে গত কিছুদিন আমাদের একটু খারাপ সময় গেছে। অনুশীলনে যেটা করি, ম্যাচে সেটা করে দেখাতে পারিনি। আমার ভাগ্য ভালো যে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে  ম্যাচে সেটা করে দেখাতে পেরেছি। উনি হয়তো আমাদের অনুশীলন দেখেন না বলে জানেন না।’

মুশফিকের ইনিংসে ভর করে ২০০ ছাড়ানো রান তাড়া করে জিতে নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের অবস্থান ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে ফেলেছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচের মলিন দশা ঝেড়ে ফেলে নতুন উদ্যমে পরের দুটো ম্যাচকেই পাখির চোখ করছেন মুশফিক-মাহমুদরা। অনন্য জয় থেকে পাওয়া আত্মবিশ্বাস আশা জোগাচ্ছে শিরোপার স্বপ্নে। ফিরে পাওয়া এ ছন্দটা হারিয়ে যেতে দিতে চান না মুশফিক, গোটা আলাপেই তাঁর কণ্ঠে ছিল সেই অঙ্গীকার।


মন্তব্য

sumon commented 11 days ago
good
fff commented 11 days ago
good boy