kalerkantho


বিশ্বকাপেও রিয়াল-বার্সা!

২২ জুন, ২০১৮ ০০:০০



বিশ্বকাপেও রিয়াল-বার্সা!

সপ্তাহ দেড়েক আগেও আজকের ব্রাজিল-কোস্টারিকা ম্যাচ নিয়ে কৌতূহলী ছিলেন ইউলেন লোপেতেগুই। কারণ নক আউট পর্বে যে স্পেনের সঙ্গে সেলেসাওদের দেখা হওয়ার সম্ভাবনার কথা উচ্চারিত হতে শুরু করেছে আরো আগে থেকেই। তবে রিয়াল মাদ্রিদের নতুন কোচ হিসেবে তাঁর নাম ঘোষিত হয়ে যাওয়ার পর স্পেনের প্রথম বিশ্বকাপ ম্যাচের দুই দিন আগে চাকরি হারানো লোপেতেগুইয়ের তবু এই ম্যাচের ওপর বিশেষ নজর থাকবে। কারণ একেই এই ম্যাচে আছেন রিয়ালের এক নম্বর গোলরক্ষক কেইলর নাভাস। আবার ব্রাজিলের গোলরক্ষক আলিসনের দিকেও নজর আছে লোপেতেগুইয়ের নতুন কর্মস্থলের। তবে এই ম্যাচে কোস্টারিকার সবচেয়ে বড় তারকা নাভাসের লড়াইটা কিন্তু আলিসনের সঙ্গে নয়। সেটি বরং ব্রাজিলের মিডফিল্ডার ফিলিপে কৌতিনিয়োর সঙ্গেই।

নেইমারের চোট নিয়ে উৎকণ্ঠা বাড়তে থাকার সময়ে যাঁকে ঘিরে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের প্রত্যাশা বেড়েই চলছিল। এবার প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে দলকে এগিয়ে দেওয়া গোলে বিশ্বকাপেও নিজের উপস্থিতি জানান দিয়েছেন এই বার্সেলোনা তারকা। সবশেষ মৌসুমে কাতালানদের হয়েও দুর্দান্ত খেলেছেন কৌতিনিয়ো। বার্সেলোনা অধ্যায়ের ইতি টানা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার জায়গাটিও পরের মৌসুমে নিতে চলেছেন ২০১৪ বিশ্বকাপের ব্রাজিল দলে সুযোগ না পাওয়া এই খেলোয়াড়। যিনি ব্রাজিলের বর্তমান কোচ তিতেরও বেশ আস্থাভাজন হয়ে উঠেছেন এরই মধ্যে। সুইসদের বিপক্ষে ড্র করার পর অনেকটা দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া ব্রাজিলের কোস্টারিকার বিপক্ষে ঝলসে ওঠার প্রয়োজনীয়তার মুখে কৌতিনিয়োর কাছে দারুণ পারফরম্যান্সের দাবিও তাই বেশি থাকা স্বাভাবিক। শঙ্কা কাটিয়ে নেইমার যেহেতু খেলছেনই, তখন ডান ও বাম দুদিক থেকেই জোরালো আক্রমণের ঝাপটাও কোস্টারিকার ডিফেন্সে হামলে পড়বে বলে আশা।

সেই আশা গিয়ে হতাশায় হোঁচট খেতে পারে যদি নাভাসও তাঁর সেরা ছন্দে দেখা দেন। রিয়াল মাদ্রিদের হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপার তিনটিতেই ছিলেন নাভাস। একসময় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে দাভিদ দে গেয়াকে এনে নাভাসকে ছেড়ে দিতে চাওয়া রিয়াল নানা ঘটনাচক্রে তাঁর থেকে যাওয়ার সুফলই গত বেশ কয়েক মৌসুমজুড়ে তুলছে। কনকাকাফ অঞ্চলের সেরা গোলরক্ষক এবং বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পাওয়া নাভাস হয়েছেন লা লিগারও বর্ষসেরা ফুটবলার। নিজের কীর্তিতে ক্রমেই নিজেকে অন্য উচ্চতায় তুলে নিতে থাকা নাভাস গোলবারের নিচে অতন্দ্র প্রহরী হয়ে উঠবেন বলেও আশা কোস্টারিকার। যে আশা পূরণ করতে পারলে বলতে হয় ব্রাজিলের জন্য কঠিন সময়ই অপেক্ষা করে আছে। তবে কোস্টারিকার ডিফেন্স ও নাভাসকে কঠিন সময় উপহার দিতে তৈরি তো কৌতিনিয়োও!

 



মন্তব্য