kalerkantho


ভ্রমণ : দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসে টিকে থাকা শহর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৭:১৮



ভ্রমণ : দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসে টিকে থাকা শহর

চেক রিপাকলিকের রাজধানী প্রাগ। এটা কিন্তু ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ১৪তম বৃহৎ শহর।

ভাটাভা নদীর ধারে গড়ে সেই মধ্যযুগে গড়ে উঠেছিল কয়েকটি শহর, যাদের নাম ছিল বোহেমিয়া। ওই শহরগুলোর একটিই এখন প্রাগ। কাজেই শহরজুড়ে মধ্যযুগীয় স্থাপত্যকলা আর ঐতিহ্যের দর্শন মিলবে।  

নদীর ধারেই রয়েছে প্রাগের জীববৈচিত্র্যময় বাগান। ওটা পর্যটকদের আকর্ষণীয় স্থানগুলোর তালিকার দ্বিতীয়তে অবস্থান করছে। অসংখ্য পর্যটক আসেন আবার মধ্যযুগে বানানো জ্যোতির্বিজ্ঞান বিষয়ক ঘড়ি দেখতে। ওটা ওল্ড স্কয়ারে শহরের সবচেয়ে ওপরে বসানো রয়েছে। এটা বানানো হয় ১৪০২ সালে।  

সেই অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ঘড়ি

ওল্ড স্কয়ার থেকে খুব বেশি দূরে নয়, রয়েছে আলফোন্স মুচা মিউজিয়াম।

সেখানে গেলেই দেখতে পাবেন আলফোন্স মারিয়া মুচার শৈল্পিক এবং বাণিজ্যিক কর্মযষ্ণ।  

আরো একটা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েছে। প্রাগ হলো হাতে গোনা কয়েকটি শহরের একটি যেটা কিনা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসের মাঝে টিকে ছিল।  

এখানকার ঐতিহ্যবাহী খাবারের তালিকায় রয়েছে মাংস। পাতের আরো থাকে 'ডাম্পলিংস' আর 'গোলাশ'। মেট্রো, ট্রেন আর ট্রামই মানুষের যাতায়াতের জন্য যথেষ্ট। এগুলো গোটা শহরে খুব সহকে ভ্রমণ করে।  

দেশটির প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবনটি কিন্তু অতি পুরনো এক প্রাসাদ। সেই নবম শতকে বানানো হয়েছিল এই প্রাস ক্যাসল। পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ এই শহরের। রঙিন সব দৃষ্টিনন্দন ভবন আর গোথিক চার্চের স্থাপত্যশৈলী অতুলনীয়। পায়ে হাঁটা চার্লস ব্রিজের দুই পাশে সাধুদের মূর্তি দাঁড়িয়ে।  

পুরনো ইতিহাস আর ঐতিহ্যের অসংখ্য নিদর্শন মিলবে এই শহরে। এ কারণে বিশ্বের আনাচে-কানাচে থেকে ভ্রমণবিলাসীরা ছুটে যান। একবার হলেও প্রাগের যাওয়ার স্বপ্ন দেখেন অনেকে। সুযোগ যদি মেলে তাহলে তা এড়িয়ে না যাওয়াই ভালো।  
সূত্র : দুবাই পোস্ট 


মন্তব্য