kalerkantho


সুকি যে পরিমাণ ভ্রমণ করেছে, তা আপনিও করেননি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৯:৪৪



সুকি যে পরিমাণ ভ্রমণ করেছে, তা আপনিও করেননি

এই বিভাগে সব সময় ভ্রমণের সব আকর্ষণীয় স্থানের খবর পেয়ে থাকেন। ভ্রমণ বিষয়ক নানা পরামর্শও দেওয়া হয়।

এবার ভিন্নধর্মী এক ভ্রমণবিদের খবর দেওয়া হলো। অবাক না হয়ে পারবেন না, যখন জানবেন যে একটি বেঙ্গল বিড়াল কতটা ভ্রমণবিলাসী! 

নাম তার সুকি। তার গায়ে রংয়ের নকশা দেখলে প্রথমেই কোনো চিতাবাঘের কথা মনে হবে। এই বিড়ালটি সম্ভবত আপনার চেয়ে বেশি ভ্রমণ করে ফেলেছে। সে তার কানাডাভিত্তিক ভ্রমণকারী ও ফটোগ্রাফারের সঙ্গে ঘুরে বেড়াচ্ছে গোটা পৃথিবী। মার্টি গাটফ্রিউন্ডের সঙ্গে শুধু ঘুরেই বেড়ায় সে।  

সর্পিল গতিতে এগিয়ে চলা পাহাড়ি নদীতে ডিঙি নৌকা থেকে শুরু করে আরেক দেশের মাশরুম ক্ষেত চষে বেড়িয়েছে সে। সুকির শেষ সঙ্গীটি তার জীবন থেকে চলে যাওয়ার পরই সে গাটফ্রিউন্ডের ভ্রমণসঙ্গী হয়ে গেছে।  

ফটোগ্রাফার জানান, আমি আর আমার সঙ্গী (সুকি) একসঙ্গে অভিযানে বের হই।

আসলে আমি অনেক আগে থেকেই প্রাণী পুষতাম। ছুটির দিনগুলোতে যখন বেড়াতে যেতাম, তখন একা যেতাম না। পোষা প্রাণীটিকে সঙ্গে নিয়ে যেতাম। এভাবে অভ্যাস হয়ে গেছে। শেষে এই বেঙ্গল বিড়ালটাকে নিজের করে নেই। এরা কিন্তু দারুণ প্রাণশক্তিকে ভরপুর।  

সুকি একেবারেই ভয়-ভীতিহীন এক বিড়াল। ও সাহসের সঙ্গে পাহাড়ের চূড়ায় উঠে যায়। এবড়ো-খেবড়ো রাস্তায় দৌড়ে দৌড়ে এগিয়ে যায়। নির্ভয়ে লেক কিংবা নদীর পানিতে পা ভেজায়। এমনকি যেদিন বাড়ি থেকে মার্টি বের হন না, সেদিনও সুকির বাইরে বেড়িয়ে আসতে হয়। অর্থাৎ, ঘুরে বেড়ানোয় অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে সে।  

সুকির এই আগ্রহ ও প্রাণশক্তির ভক্ত হয়ে পড়েছে মানুষ। ইতিমধ্যে ইনস্টাগ্রামে তার ২ লাখ ১৬ হাজার ফলোয়ার তৈরি হয়েছে।  

ভ্রমণবিলাসী ফটোগ্রাফার হিসাবে বহু দেশ আর স্থান ঘুরেছেন মার্টি। এর অনেকগুলোতে গেছে মার্টি। এই বিড়ালটি এত জায়গা ভ্রমণ করেছেন যে এত জায়গায় আপনিও হয়তো যাননি। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস 


মন্তব্য