kalerkantho


বেইজিংয়ের আইস অ্যান্ড স্নো পার্ক, যেন বিশ্বের সর্ববৃহৎ ফ্রিজ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৭:১০



বেইজিংয়ের আইস অ্যান্ড স্নো পার্ক, যেন বিশ্বের সর্ববৃহৎ ফ্রিজ!

কেবল গরমকালেই যে বরফে আচ্ছাদিত কোনো অঞ্চলে যেতে হবে এমন কোনো কথা নেই। ভ্রমণকারীদের জন্য যেকোনো সময় বিশেষ কোনো স্থান সেরা গন্তব্য বলে বিবেচিত হতে পারে।

সামনে শীত আসলেও এখন বিশ্বের আনাচে-কানাচের পর্যটকরা চীনে যাওয়ার জন্য পাগল হয়ে উঠেছেন। স্কিয়িং পারেন বা নাই পারেন, বিশ্বের সর্ববৃহৎ স্কি পার্কটা দেখে আসতে কার না মন চাইবে। নতুন আইস অ্যান্ড স্নো পার্ক চালু হয়েছে সেখানে। এটা চীনের পরিচয় প্রকাশে নতুন এক নিশানা হয়ে উঠেছে। মূলত আসন্ন ২০২২ সালের উইন্টার অলিম্পিকসকে সামনে রেখেই এই দর্শনীয় স্কেটিং পার্ক বানানো হয়েছে বেইজিংয়ে।  

বিশাল সব পাখা আর শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার মাধ্যমে গোটা পার্কে মাইনাস ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বজায় রাখা হয়। পুরো ৮ লাখ ৬১ হাজার বর্গ ফুট জুড়ে গড়ে উঠেছে এই স্কেটিং পার্ক। সেখানে রয়েছে দীর্ঘতম স্ট্রেচিং, যা পুরো ৫০০ মিটার।  

সেখানে যারা আসছেন তারা তো মুগ্ধ।

বলছেন, এখানে স্কেটিং করার মানে হলো বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রিজে স্কেটিং করা। যারা ওই প্রতিযোগিতায় আংশ নেবেন, তারা এখন থেকেই এখানে আসা-যাওয়া শুরু করে দিয়েছেন। এমনিতেও যারা স্কেটিংয়ে দক্ষ এবং আগ্রহী তারা নিউজিল্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে ছুটে যান। যাদের এ খেলায় আগ্রহ নেই তারাও স্রেফ দেখার জন্য অদ্ভুত সুন্দর স্থানগুলোতে ছুটে যান। এখন এদের সবার আগ্রহ পড়েছে বেইজিংয়ের আইস অ্যান্ড স্নো পার্কের ওপর। যারাই যাচ্ছেন, তারাও স্কেটিংয়ের স্বাদ নেওয়ার চেষ্টা করছেন।  

যে কেউ সেখানে গিয়ে স্কেটিং করতে পারেন বা ঘুরেফিরে দেখতে পারেন। সেখানে প্রবেশের বিভিন্ন প্যাকেজ রয়েছে। সবচেয়ে জনপ্রিয় প্যাকেজটি হলো তিন ঘণ্টার ভ্রমণ মাত্র ৪৫ মার্কিন ডলারে। স্কেটিংয়ের জন্য যাবতীয় যন্ত্রপাতি ভাড়া করে গোটা একদিন কাটানো যাবে ৭৪ ডলারে।  

কাজেই ওদিকে ঘোরাঘুরির পরিকল্পনা থাকলে বেইজিংয়ে বিশ্বের সর্ববৃহৎ স্কেটিং পার্কে চলে যান। দেখে নিতে পারবেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্রিজ।  
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস 


মন্তব্য