kalerkantho


বিমানে দীর্ঘ সময়ের ভ্রমণে...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ অক্টোবর, ২০১৭ ১৩:৫৯



বিমানে দীর্ঘ সময়ের ভ্রমণে...

ভ্রমণে যদি দীর্ঘ সময়ের ফ্লাইটে চড়তে হয়, তবে আজকের পরামর্শ তাদের জন্যই। সত্যি কথাটা হলো, কেউ-ই ভারী ব্যাগ নিয়ে চলাফেরা করতে চান না।

দীর্ঘপথের ভ্রমণে আসলে নিজের পছন্দের জিনিসগুলোই নেওয়া হয়ে ওঠে না। বিমানে চড়লে দুই একটা ব্যাগে আর কতই বা জিনিস নেবেন। তবে অনেক সময়ের ফ্লাইটেও কিন্তু নিশ্চিন্তে আর আরামের ভ্রমণ উপভোগ করা যায়। এর জন্য কিছু জিনিস সঙ্গে নেবেন। তাহলে অনেক গোছালো থাকতে পারবেন। সময়টাও ভালো কাটবে, আবার প্রয়োজনীয় জিনিসগুলোও কাছে থাকবে।  

প্রযুক্তি এবং অন্যান্য 
মনে রাখবেন, আকাশের পথটা আপনার জন্যে ব্যাপক বিরক্তিকর হয়ে উঠতে পারে এসবের অভাবে। কাজ থাকলেও তা এগিয়ে রাখতে পারবেন না। তাই স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ইত্যাদি হাতের কাছে থাকতে হবে।

শুধু তাই নয়, বাড়তি ব্যাটারি বা পাওয়ার ব্যাংক সঙ্গে রাখবেন। এগুলো ছাড়া ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিমানে বসে থাকা অনেকে ঝক্কির বিষয়। তবুও ছোটখাটো জিনিস ভুলে ফেলে আসতে পারেন। ওগুলো বিমানবন্দর থেকে কিনে নিতে পারেন। যা যা অবশ্যই নিতে হবে- 

১. ল্যাপটপ বা ট্যাবলেট,
২. টিকেট এবং পাসপোর্ট, 
৩. ফোন, হেডফোন এবং চার্জার, 
৪. নগদ অর্থ, কার্ড এবং আইডি কার্ডসহ ওয়ালেট।  

ঘুম ও আরামের জন্যে
বাচ্চার কান্নায় ঘুম আসছে না। পাশের মানুষটি বিরক্তিকর আচরণ করছেন? এমন অনেক কারণ আপনার সুখের যাত্রাকে নষ্ট করতে পারে। তাই এ থেকে বাঁচতে কিছু জিনিস সঙ্গে আনবেন অবশ্যই।  

১. চোখের মাস্ক এবং ইয়ার প্লাগস, 
২. নেক পিলো, 
৩. আরামদায়ক এক জোড়া মোজা, 
৪. হালকা ওজনের সুয়েটার এবং কার্ডিগান।  

পরিচ্ছন্নতা ও টয়লেট্রিজ 
আসলে বিমানে ভ্রমণের সময় বাথরুমের সব জিনিস আপনাকে বহন করতে হবে না। কেবল ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতার জন্য কয়েকটি বিষয়ে খেয়াল দিতে হবে। হতে পারে বিমান থেকে নেমে কোনো একটা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তখন এসবের দরকার। তবে জরুরি জিনিসগুলো নেওয়ার আগে বিমানবন্দরের নিয়ম জেনে নেবেন এবং তা মেনেই জিনিস প্যাক করবেন। যা নিতে পারেন- 

১. একটি ডিওডরেন্ট এবং একটি মিস্ট, 
২. মেকআপ তোলার জন্যে ওয়েট ওয়াইপস, 
৩. হ্যান্ড স্যানিটাইজার, লোশন এবং ফেস ময়েশ্চারাইজার, 
৪. চিরুনি এবং মেকআপ বক্স, 
৫. টুথব্রাশ, টুথপেস্ট এবং ফ্লস, 
৬. স্যানিটারি প্যাড (যদি লাগে)।  

বিনোদন ও খাবার 
অনেক সময়ের ভ্রমণে বিনোদন দরকার। সময় কাটানোর জন্য কতক্ষণ আর ঘুমানো যায়। কতক্ষণই বা আর মুভি দেখা সম্ভব? এ ছাড়া দীর্ঘ পথে ক্ষুধাও লাগে বেশ। বিমানেও যা মন চায় তা হয়তো পাবেন না। তাই সঙ্গে নিন- 

১. পড়ার জন্যে ম্যাগাজিন বা উপন্যাস, 
২. কয়েক ধরনের স্ন্যাক্স, 
৩. পানির বোতল, 
৪. গানের সংগ্রহ থাকবে স্মার্টফোন বা আইপ্যাডে, 
সূত্র : সুইর্লস্টার 


মন্তব্য