kalerkantho


লেবার রুমে ঢুকতে বাধা, বাইরেই সন্তান প্রসব!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ আগস্ট, ২০১৭ ০০:১৮



লেবার রুমে ঢুকতে বাধা, বাইরেই সন্তান প্রসব!

ছবি: ইন্টারনেট

প্রসব যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন এক নারী। তখন তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের লোকজন। কিন্তু, হাসপাতালের লেবার রুমে ঢোকার অনুমতি মিলল না। একসময় যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে লেবার রুমে বাইরেই সন্তান প্রসব করলেন ওই নারী। এমনই অমানবিক ঘটনা ঘটেছে ওড়িশার বেরহামপুরের মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্র গজপতি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। এরপর ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাসপাতালের সুপার।

ওই নারীর মা রুবিনা লামার অভিযোগ, বৃহস্পতিবার তাঁর মেয়ের প্রসব যন্ত্রণা ওঠে। তড়িঘড়ি করে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তাঁরা। কিন্তু, হাসপাতালের লেবার রুমে ঢুকতে গেলে, ওই নারীকে বাধা দেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। তাঁকে ভর্তি নিতেও অস্বীকার করা হয়। এরপরই লেবার রুমের বাইরে খোলা জায়গায় সন্তান প্রসব করেন ওই নারী।

ঘটনার কথা জানাজানি হতেই হাসপাতালে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

ঘটনার প্রতিবাদে মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্র গজপতি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে সুপারের ঘরের সামনে বিক্ষোভ করে স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা। অবিলম্বে অভিযুক্ত চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তোলেন তাঁরা। ওড়িশার বিজেপি মহিলা শাখার সম্পাদিকা ববিতা পাত্র বলেন, একজন নারী হাসপাতালে লেবার রুমে ঢুকতে না পেরে বাইরেই সন্তান প্রসব করতে বাধ্য হয়েছেন। এটা খুবই উদ্বেগজনক।

এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বেরহামপুরের মহারাজ কৃষ্ণচন্দ্র গজপতি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সুপার ক্ষেত্রবাসী সুবুদ্ধি। তিনি বলেন, হাসপাতালের স্ত্রীরোগ বিভাগের প্রধানের নেতৃত্বে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তে যদি কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়, তাহলে তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যদিও ওই নারীকে লেবার রুমে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হাসপাতালের কর্মকর্তারা। তাঁদের দাবি, প্রসবের পর ওই নারীকে লেবার রুমে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। সূত্র: ইন্টারনেট


মন্তব্য