kalerkantho


স্বামীকে খুন করতে প্রেমিকের হাতে অস্ত্র তুলে দেয় স্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২২:০০



স্বামীকে খুন করতে প্রেমিকের হাতে অস্ত্র তুলে দেয় স্ত্রী

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

স্বামীকে খুন করার জন্য প্রেমিকের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছিল স্ত্রী। কাজ হাসিল হলে জমি সংক্রান্ত বিবাদে স্বামীকে তার শরিকরা কুপিয়ে খুন করেছে বলে অভিযোগ করেও শেষ রক্ষা হয়নি।

এ ঘটনায় নিহত আফসার গাজির স্ত্রী নুরনেহা বিবি ও তার প্রেমিক আবদুল হক মোল্লাকে গ্রেপ্তার করল বসিরহাট থানার পুলিশ। ১৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট থানার পিফা গ্রামে খুন হন আফসার গাজি (‌৩৫)।

আফসারের বাড়ি হাসনাবাদের ভেবিয়া গ্রামে। থাকতেন বসিরহাটের পিফা গ্রামের শ্বশুরবাড়িতে। কলকাতায় সেলাইয়ের কাজ করতেন। ঈদের ছুটি নিয়ে কয়েকদিন পরিবারের সঙ্গে কাটাতে এসেছিলেন। শুক্রবার নামাজ পড়ে ফেরার পথে শ্বশুরবাড়ির কাছেই তাঁকে দুষ্কৃতিকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে পালিয়ে যায়। এলাকার মানুষ দেখেন রাস্তার পাশে আফসারের দেহ পড়ে আছে। পুলিশ তদন্তে নেমে পিফা গ্রামেরই আবদুল হককে গ্রেপ্তার করে।

জেরায় আবদুল হক আসল ঘটনা পুলিশকে জানিয়ে দেয়।

এই খুনের সঙ্গে জড়িত নিহত আফসারের স্ত্রী নুরনেহা বিবি। বিয়ের আগে থেকেই আবদুল হকের সঙ্গে নুরনেহার সম্পর্ক। সেই সম্পর্ক এখনো রয়েছে। শ্বশুর-শাশুড়ি মারা যাওয়ার পর নুরনেহার কথায় অনিচ্ছা সত্ত্বেও হাসনাবাদের ভেবিয়া গ্রামে নিজের বাড়ি ছেড়ে শ্বশুরবাড়িতে থাকতে শুরু করেন আফসার। কাজের সূত্রে কলকাতায় থাকেন। স্বামীর অনুপস্থিতির সুযোগে নুরনেহা-আবদুল হকের সঙ্গে সম্পর্ক আরো গভীর হয়। এ নিয়ে স্বামী-‌স্ত্রীর মধ্যে অশান্তিও চলছিল। আফসারকে সরাতে তাই পরিকল্পনা করে নুরনেহা। আবদুল হকের হাতে সে‌ই ধারালো দা তুলে দেয়। শুক্রবার নামাজ পড়ে ফেরার পথে রাস্তাতে দাঁড়িয়েছিলেন আফসার। পুলিশ গতকাল প্রেমিক আবদুল হককে গ্রেপ্তার করে। আজ সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার হয়েছে স্ত্রী নুরনেহা। ‌ সূত্র: ইন্টারনেট


মন্তব্য