kalerkantho


দিল্লীতে বাজি নিষিদ্ধকরণের সিদ্ধান্তে বিরোধিতায় রামদেব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০২:২৩



দিল্লীতে বাজি নিষিদ্ধকরণের সিদ্ধান্তে বিরোধিতায় রামদেব

ভারতে দিল্লীতে আতশবাজি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তে বিরোধিতার সুর চড়ছে। লেখক চেতন ভগত, ত্রিপুরার রাজ্যপাল তথাগত রায়ের পর এবার সুপ্রিম কোর্টের রায়ের তীব্র সমালোচনা করলেন বাবা রামদেব।

তিনি বলেন, হিন্দুদেরই নিশানা করা হচ্ছে। হিন্দুদের বিভিন্ন উৎসবকে যেভাবে আতশকাচের নিচে ফেলা হচ্ছে, তা ঠিক নয়।

দিল্লীতে দূষণ ঠিক কতটা বেড়েছে, তা এখন আর কারোরই অজানা নয়। কালীপূজার সময়ে রাজধানীতে দূষণের চেহারাটা আরও ভয়াবহ হয়ে ওঠে। তাই দিল্লীতে বাজি নিষিদ্ধ করার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সেই আবেদন মেনে নিয়েই দিল্লী ও রাজধানী অঞ্চলে আতশবাজি নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করেছে শীর্ষ আদালত। আগামী ১ নভেম্বর পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে।

কিন্তু, ইতোমধ্যেই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ বিরোধিতায় সরব হয়েছেন লেখক চেতন ভগত, ত্রিপুরা রাজ্যপাল তথাগত রায়। আর এবার এই ইস্যুতে মুখ খুললেন রামদেবও।

তিনি বলেন, সবকিছু নিয়েই আদালতের দ্বারস্থ হওয়াটা কি মানুষের অধিকারের মধ্যে পড়ে? আমিও স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় চালাই। আমরা শুধু হাতে ধরা যায়, এমন বাজি ফাটানোর অনুমতি দিই। এই বাজিগুলি খুবই আস্তে আস্তে পোড়ে। আমরা শব্দবাজি ফাটানো সমর্থন করি না। বড় বাজির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা উচিত।  

এই ধর্মগুরুর আরও অভিযোগ, শুধুমাত্র হিন্দুদেরই নিশানা করা হচ্ছে। তাদের উৎসবগুলি আতশকাচের নিচে ফেলা হচ্ছে।


মন্তব্য