kalerkantho


যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড়ের অচল জীবনযাত্রা, নিহত ২২

সাবেদ সাথী, নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি   

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:৪৫



যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড়ের অচল জীবনযাত্রা, নিহত ২২

ছবি : কালের কণ্ঠ

যুক্তরাষ্ট্রে প্রচণ্ড ঠান্ডা আর তুষার ঝড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২-এ। ড়গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হওয়া এ বৈরি আবহাওয়ায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জন জীবন। এখনো হিমাঙ্কের নিচে তাপমাত্রার সঙ্গে বইছে দ্রুতবেগের বাতাস।

তুষার ঝড় ও কনকনে ঠাণ্ডা বাতাসের তাণ্ডবে গত কয়েক দিনে অন্তত ২২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।পাঁচটি অঙ্গরাজ্যে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছেন ১৩ হাজারের বেশি মানুষ। বৃহস্পতি ও শুক্রবার দু’দিনে প্রায় ছয় হাজার বিমান চলাচল বাতিল করা হয়েছে। শুধু বৃহস্পতিবারেই বাতিল করা হয়েছে ৪ হাজারের বেশি ফ্লাইট। উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যের কয়েক লাখ বাংলাদেশিসহ প্রায় দেড় কোটি মার্কিনী গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন। 

যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে উইসকনসিনে ছয়জন, টেক্সাসে চারজন, নর্থ ক্যারোলিনায় তিনজন এবং মিশিগান, মিসৌরি ও নর্থ ডাকোতায় একজন করে প্রাণহানির শিকার হয়েছেন।

বিভিন্ন স্থানে মাইনাস ১৫ থেকে মাইনাস ৩০ ডিগ্রি তাপমাত্রা পরিলক্ষিত হয়েছে। গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সাউথ ক্যারোলিনা, নর্থ ক্যারোলিনা, উইসকনসিন, মিসৌরি, মিশিগান, নর্থ ডাকোতা, ভার্জিনিয়া, ম্যারিল্যান্ড, পেনসিলভানিয়া, নিউ জার্সি, কানেকটিকাট, ম্যাসাচুসেটস, রোড আইল্যান্ড, নিউ হ্যামশায়ার, ভারমন্ট ও নিউ ইয়র্কের বিপুল সংখ্যক বাসিন্দা। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার দুর্যোগ কবলিত এলাকাগুলোতে সরকারি অফিস-আদালত, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা ঘোষণা করা হয়েছে। উপকূলীয় এলাকায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

যেসব ঝড় খুব দ্রুত শক্তিশালী হয়ে উঠে সেগুলোকে কখনও কখনও ‘বোমা ঝড়’ নামে ডেকে থাকেন বিজ্ঞানীরা। যুক্তরাষ্ট্রের এই ঝড়টিও খুব দ্রুত শক্তিশালী হয়েছে। তাই স্থানীয়ভাবে একে 'বোমা সাইক্লোন' বা 'বোমা ঝড়' নামে ডাকা হচ্ছে। ফ্লোরিডার টালাহাসিতে তিন দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো তুষারপাত হতে দেখা গেছে। সেখানে কয়েক মিলিমিটার পর্যন্ত তুষার জমেছে। তবে দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে তুষারপাতের পরিমাণ আরও বেশি।

জর্জিয়ার এলাবেলাতে ১৫ সেন্টিমিটার পুরু তুষার জমেছে। সাউথ ক্যারোলিনার সামারভিলেতে জমা হওয়া তুষারের পুরুত্ব ১৮ সেন্টিমিটার। নর্থ ক্যারোলিনার পাইনহার্স্টেও ১৫ সেন্টিমিটার পুরু তুষার জমেছে। তুষারপাতের পাশাপাশি খুব শীতল বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির পানি নিচে পড়ার পর মুহূর্তেই তা জমে যাচ্ছে।

এদিকে নিউ ইয়র্ক সিটির ব্যস্ত ও জনবহুল এলাকা জ্যামাইকা, জ্যাকসন হাইটস, চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড, ওজনপার্ক, পার্কচেস্টার, নিউ জার্সির প্যাটারসন, আটলান্টিক সিটি, পেনাসিলভেনিয়ার ফিলাডেলফিয়া, আপারডারবি শহরের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকার সকল দোকানপাট ছিল প্রায় জনমানব শূন্য। এসব এলাকার দোকানগুলোতে অনেকাংশেই কমেছে কেনাকাটা। তবে আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটলে আবারো স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসবে বলে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীগণ আশা করছেন।


মন্তব্য