kalerkantho


রোহিঙ্গা হত্যার স্বীকারোক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে আরসা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:১৩



রোহিঙ্গা হত্যার স্বীকারোক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে আরসা

ছবি অনলাইন

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানে যে ১০ রোহিঙ্গাকে হত্যার স্বীকারোক্তি এসেছে তারা নিরাপরাধ বেসামরিক মানুষ ছিলেন বলে জানিয়েছে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)।  পাশাপাশি তাদের হত্যার স্বীকারোক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে আরসা।

বুধবার মিয়ানমার সেনাপ্রধানের ফেইসবুক অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতিতে বলা হয়, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ওই ১০ জনকে হত্যা করেছে বলে তদন্তে উঠে এসেছে এবং এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন : রোহিঙ্গা নির্যাতনের ইতিহাস

গত ১৮ ডিসেম্বর রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিতভি থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার উত্তরে ঊপকূলীয় ওই গ্রামে গণকবরে ১০ জনের মৃতদেহ পাওয়ার কথা জানায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী।

এ বিষয়ে এক টুইট বার্তায় বিষয়টিকে তুলে ধরেছে আরসা। শনিবার আরসার এক টুইটে বলা হয়েছে, “ইন দিন গ্রামের একটি গণকবরে যে দশ নিষ্পাপ রোহিঙ্গা বেসামরিক লোকের মৃতদেহ পাওয়া গেছে তারা আরসা সদস্য ছিলেন না বা আরসার সঙ্গে তাদের কোনো সংশ্লিষ্টতাও ছিল না।”

আরো পড়ুন : রোহিঙ্গা কারা?

আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মিও তাদের এই স্বীকারোক্তিকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, “বার্মিজ সন্ত্রাসী আর্মির যুদ্ধাপরাধের এই স্বীকারোক্তিকে আমরা আন্তরিকভাবে স্বাগত জানাচ্ছি।”

মিয়ানমার সেনাবাহিনী এই হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করলেও তাদের বাঙালি সন্ত্রাসী হিসেবে বর্ণনা করেছিল।



মন্তব্য