kalerkantho


আত্মঘাতী হামলা ইসলামবিরোধী, ফতোয়া পাকিস্তানের ধর্মগুরুদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:১৩



আত্মঘাতী হামলা ইসলামবিরোধী, ফতোয়া পাকিস্তানের ধর্মগুরুদের

আত্মঘাতী হামলা ইসলামবিরোধী। এই মর্মে ফতোয়া জারি করল পাকিস্তানের ১৮০০ জন মুসলিম ধর্মগুরু। তাদের বক্তব্য ইসলামি শরীয়ত অনুসারে আত্মঘাতী হামলা সম্পূর্ণ অবৈধ। যে দর্শনের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন যেমন, ইসলামিক স্টেট, তেহরিক-ই-তালিবান, আল কায়েদা, বোকো হারাম ও অন্যান্য নিষিদ্ধ সংগঠন পরিচালিত হচ্ছে তা ভুল বলে জানিয়েছেন এই মাওলানারা।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলি বহু বছর যাবৎ সন্ত্রাসে বিদ্ধ। আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের পরিমাণ ক্রমশই বাড়ছে। বিশেষত ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠিগুলির মধ্যে আত্মঘাতী বিস্ফোরণের প্রবণতার হার বেশি। সেই বিষয়কে সামনে রেখেই মঙ্গলবার এই ফতোয়া জারি করে মাওলানার।

আত্মঘাতী বিস্ফোরণকে অনৈতিক ও ইসলামবিরোধী বলে আখ্যা দিয়ে মাওলানারা জানিয়েছেন, এর ফলে ইসলামের আসল পথ থেকে সরে আসছে জঙ্গিরা। এতে সাধারণ মানুষের প্রাণহানি হচ্ছে। আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের ফলে ভুল পথে হাঁটছে তথাকথিত জেহাদ।

সন্ত্রাসবাদের বিরোধীতা করতেই এই ফতোয়া বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের মুসলিম ধর্মগুরুদের সংগঠন। ২০০০ সাল থেকে সন্ত্রাসবাদের কবলে হাজার হাজার নিরীহ মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। তাই মাওলানাদের মতে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ইসলামের চোখে হারাম বা পাপ। ইসলামি রাষ্ট্রের ভিত্তি শান্তি। সেই ভিতকে নাড়িয়ে দিচ্ছে এই ধরণের বিস্ফোরণ। তাই অবিলম্বে এই ঘটনা বন্ধ হওয়া দরকার বলে মত পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মামনুন হুসাইনেরও।

এই ফতোয়া ইসলামের গোল্ডেন রুলকে ভিত্তি করে তৈরি। ইতিমধ্যেই তা জারি করা হয়েছে পাকিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে।


মন্তব্য