kalerkantho


স্বামীর কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ, যেভাবে ধরা পড়লেন অভিযুক্তরা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১২:৫৬



স্বামীর কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ, যেভাবে ধরা পড়লেন অভিযুক্তরা

রাস্তায় গাড়ি থেকে টেনে-হিঁচড়ে বের করে স্বামী ও দেবরের কপালে পিস্তল ধরে রাখে চারজন দুর্বৃত্ত। এরপর স্ত্রীকে দলগতভাবে ধর্ষণ করা হয়। সোমবার রাতে ভারতের গুরগাঁওয়ে ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ বলছে, ইতোমধ্যেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার ২২ বছর বয়সী ওই নারী জানান, পারিবারিক এক অনুষ্ঠান শেষে স্বামী ও দেবরের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। পথিমধ্যে তার স্বামী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য বের হন।

তিনি আরো জানান, হঠাৎ করেই সেখানে দু'টি গাড়ি এসে তাদের গাড়ির পাশে থামে। এক পর্যায়ে চারজন নেমে এসে গাড়ি থামানোর কারণ জানতে চান। একপর্যায়ে ঘটে জঘন্য ঘটনা।

আরো পড়ুন : সুষম প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে ভারত পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

ওই নারীকে গাড়ি থেকে টেনে-হিঁচড়ে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়। তার স্বামী ও দেবরের কপালে বন্দুক ধরে রেখে তাদের সামনেই দলগতভাবে ধর্ষণ করে দুর্বৃত্তরা।

পরে স্বামী ও দেবরের সঙ্গে এসে থানায় অভিযোগ করেন ওই নারী। অভিযোগে কেবল দুর্বৃত্তদের গাড়ির নম্বর উল্লেখ করা হয়। সেই নম্বরের সূত্র ধরেই গুরগাঁও সোহনার জোহালকা গ্রাম থেকে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

সূত্র : এনডিটিভি


মন্তব্য