kalerkantho


উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বৈঠক বাতিল ট্রাম্পের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ মে, ২০১৮ ২০:৩৪



উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বৈঠক বাতিল ট্রাম্পের

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে ১২ জুনের বৈঠক বাতিল করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজের এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চিঠিতে ট্রাম্প বলেছেন, ‘সেখানে আপনার সঙ্গে মিলিত হতে আমি খুব উদগ্রীব ছিলাম। তবে দুঃখজনক, আপনার সাম্প্রতিক বিবৃতিতে তীব্র ক্ষোভ ও প্রকাশ্য শত্রুতা প্রকাশিত হওয়ায় আমি মনে করছি, এই সময়ে দীর্ঘ পরিকল্পিত এই বৈঠক সঠিক হবে না।’

পরমাণু অস্ত্র পরিহার করার জন্যে যুক্তরাষ্ট্র যদি একতরফাভাবে চাপ দিতে থাকে তাহলে বৈঠকটি বাতিল করা হবে বলে হুমকি দিয়েছিলেন কিম।

উত্তর কোরিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চো সন-হুইও আজ বৃহস্পতিবার বলেছেন, আমেরিকা বেআইনি ও ভয়ানক তৎপরতা অব্যাহত রাখলে আলোচনা বাতিল করা হবে। আলোচনায় বসার জন্য উত্তর কোরিয়া আমেরিকার কাছে অনুনয়-বিনয় করবে না বলে তিনি ঘোষণা করেন।

উত্তর কোরিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী চো সন-হুই মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সাম্প্রতিক বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, পেন্স নির্বোধের মতো বক্তব্য রেখেছেন। পেন্স সম্প্রতি বলেছেন, উত্তর কোরিয়া পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের মার্কিন দাবি মেনে না নিলে দেশটিকে লিবিয়ার মতো পরিণতি ভোগ করতে হতে পারে।

২০০৪ সালে লিবিয়ার তৎকালীন নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফি আমেরিকার সঙ্গে পরমাণু বিষয়ক আলোচনা শুরু করে। কিন্তু এর ছয় বছর পর আমেরিকা গাদ্দাফিকে ক্ষমতাচ্যুত করার প্রক্রিয়ায় সমর্থন দেয় এবং বিদ্রোহীদের হাতে গাদ্দাফি নিহত হন।

ওদিকে, পাঙ্গিয়ে রি-তে পরমাণু পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করেছে পিয়ংইয়ং। আলোচনার পূর্বশর্ত হিসেবে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কর্মসূচি পুরোপুরি বন্ধ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গগুলি ধ্বংস করতে বলা হয়েছিল। এই মাসের শুরু পর্যন্ত যা করেনি পিয়ংইয়ং। এরপরই জল্পনা ছড়ায় তবে কি আলোচনা থেকে সরে আসছেন উন। 

কিন্তু, আজ স্থানীয় সময় ১১টা নাগাদ উত্তর কোরিয়ার পাঙ্গিয়া রি-এর পরমাণু পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। বিস্ফোরণের শব্দের কথাও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে বলে জানাচ্ছে সংবাদমাধ্যমগুলি।

এই কেন্দ্রেই মোট ৬টি পরমাণু পরীক্ষা করেছিল কিম প্রশাসন। যদিও এর আগে বিদেশি সাংবাদিকদের সামনে পরমাণু পরীক্ষা কেন্দ্র ধ্বংসের কথা জানালেও, আজ কর্মসূচির সময় কোনও সাক্ষী রাখা হয়নি। তবে ধ্বংসের পর সংবাদমাধ্যমকে তা জানানো হয়।


মন্তব্য