kalerkantho


জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী পদত্যাগ করছেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জুন, ২০১৮ ১৬:১২



জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী পদত্যাগ করছেন

ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের জোট সরকার থেকে সমর্থন তুলে নিল দেশটির কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। সমর্থন তুলে নেওয়ার পরেই রাজভবনে যাচ্ছেন জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহেবুবা মুফতি। সম্ভবত ইস্তফা দিতেই রাজভবনে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। যদিও এরপর কি হবে তা নিয়ে আর কিছুক্ষণের মধ্যে বৈঠকে বসছেন পিডিপি।

মুখ্যমন্ত্রীর ইস্তফার পরেই রাষ্ট্রপতি শাসন জারির সম্ভাবনা রয়েছে। প্রসঙ্গত, কিছুক্ষণের মধ্যে পিডিপি -র সঙ্গে জোট ছিন্ন করার কথা জানিয়ে দিল বিজেপি। বিজেপির তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, দেশের সার্থে কোনও ভাবেই সংঘর্ষ বিরতি মেনে নেওয়া সম্ভব নয়।

প্রসঙ্গত, জম্মু ও কাশ্মীরে জোট সরকারে দলের সব মন্ত্রীকে আজ হঠাত করেই দিল্লিতে বৈঠকে ডাকেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। আজই রাজধানীতে হাজির হতে বলা হয় তাঁদের সবাইকে। সদ্য জম্মু ও কাশ্মীরে রমজান শেষ হতেই সংঘর্ষবিরতি বা জঙ্গি দমন অভিযান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এই প্রেক্ষাপটে বিজেপি সভাপতির দলীয় মন্ত্রী, শীর্ষ নেতাদের জরুরি তলব ঘিরে তীব্র কৌতূহল, জল্পনা তৈরি হয়েছে।

অমিত শাহ আসতে বলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি রবিন্দর রায়না, দলের সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অশোক কাউলকেও। জম্মু কাশ্মীরের উপ মুখ্যমন্ত্রী কবিন্দর গুপ্তাকে উদ্ধৃত করে সূত্রের খবর, একেবারেই আকস্মিক এই তলব। কাশ্মীরের প্রতিটি বিজেপি মন্ত্রীকে ডাকা হয়েছে।

সদ্য জম্মু ও কাশ্মীরে রমজান শেষ হতেই সংঘর্ষবিরতি বা জঙ্গি দমন অভিযান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে কেন্দ্র। এই প্রেক্ষাপটে বিজেপি সভাপতির দলীয় মন্ত্রী, শীর্ষ নেতাদের জরুরি তলব ঘিরে তীব্র কৌতূহল, জল্পনা তৈরি হয়।

এরপরই বিজেপি ঘোষণা করে, যে তারা আর পিডিপি-র সঙ্গে থাকছে না। ঘোষণার পর, বিজেপির তরফ থেকে রাম মাধব সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন, সুজাত বুখারি কিংবা ঔরঙ্গজেবকে হত্যার মত নৃশংস ঘটনার পর কেন্দ্রের পক্ষে আর সংঘর্ষ বিরতি জারি রাখা সম্ভব হচ্ছে না। বিজেপি কাশ্মীরে শান্তি ও উন্নয়ন চায় বলেই দাবি করেছেন তিনি। তিনি বলেন, কাশ্মীরের জন্য ৮০,০০০ কোটির প্যাকেজ দেওয়া হয়েছে। সাধারণ মানুষের কথা ভেবে সীমান্তে ৪০০০ বাংকার তৈরির সিদ্ধান্তও নিয়েছে সরকার।

সূত্র: কলকাতা ২৪x৭



মন্তব্য