kalerkantho


ভারতে ছেলেধরা সন্দেহে নগ্ন করে মারধর, আটক আট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ জুন, ২০১৮ ২১:১৮



ভারতে ছেলেধরা সন্দেহে নগ্ন করে মারধর, আটক আট

ভারতের পুরাতন মালদহের সাহাপুর পঞ্চায়েতের ছাতিয়ান মোড়ে ছেলেধরা সন্দেহে এক যুবককে নগ্ন করে গণপিটুনি দেওয়ার ঘটনায় জড়িত আট জনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার রাতেই ছাতিয়ান মোড় থেকে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, অনিচ্ছাকৃতভাবে খুনের চেষ্টা, পুলিশের কাজে বাধা, সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করাসহ একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করা হয়েছে। ঘটনায় ৪৫ জনসহ অজ্ঞাত আরো অনেকের নামে মামলা করা হয়েছে।

রবিবার আটককৃতদের মালদহ জেলা আদালতে হাজির করানো হলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মালদহের পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষ বলেন, ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখে বাকি অভিযুক্তদেরও আটকের প্রক্রিয়া চলছে। শুধু ছাতিয়ান মোড়ের ঘটনা নয়, ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির ঘটনা ঘটলেই মারধরকারীদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, প্রহৃত যুবক মনোজ লালার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় মৌলপুর গ্রামীণ হাসপাতাল থেকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে মালদহ মেডিক্যালে। তার বুকে আঘাত রয়েছে। মানসিকভাবেও তিনি বিপর্যস্ত। পুলিশ বলছে, পুরাতন মালদহের মঙ্গলবাড়িতে তার আত্মীয়ের বাড়ি রয়েছে। একটি হার্ডওয়্যারের দোকানে আগেও কাজ করতেন মনোজ।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ছাতিয়ান মোড়ে এক যুবক তাকে ছেলেধরা সন্দেহে প্রথমে মারধর শুরু করে। পরে গ্রামের লোকেরাও কিছু না বুঝে চড়াও হয়। নগ্ন করে অমানবিকভাবে চলে মারধর। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে গ্রামের একাধিক মানুষকে মারমুখী অবস্থায়। সমাজ বিদ্যা বিষয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক কৃষ্ণা গুহ বলেন, পুলিশের কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়টি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। যাতে মারমুখী হওয়ার আগে শাস্তির কথা ভেবে ভয় পায়।

 



মন্তব্য