kalerkantho


ক্যারিয়ার কনসালট্যান্সি

পলিটেকনিকে ক্যারিয়ার

পরামর্শ দিয়েছেন প্রকৌশলী কাজী জাকির হোসেন
অধ্যক্ষ, ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট

১৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



পলিটেকনিকে ক্যারিয়ার

প্রশ্ন : আমি ঢাকার একটি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে অটোমোবাইল কিংবা রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনিংয়ে বা পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা করতে চাই। কোথায় কেমন কাজের সুযোগ আছে, জানতে চাই।

—সিরাজুল ইসলাম, নাটোর।

 

বিশেষজ্ঞ পরামর্শ : কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অটোমোবাইল কিংবা রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনিংয়ে ডিপ্লোমাধারীদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজের সুযোগ আছে। বেসরকারি পর্যায়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনেক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। সরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদনকেন্দ্রেও নিয়োগ দেওয়া হয়। অটোমোবাইল সেক্টরেও অনেক সুযোগ আছে। দেশে অনেক সিএনজি ফিলিং স্টেশন আছে। প্রত্যেক সিএনজি ফিলিং স্টেশনে কমপক্ষে একজন করে ডিপ্লোমা ইন পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করা প্রকৌশলীর প্রয়োজন হয়। উদ্যোক্তা হিসেবেও নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন। বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে অটোমোবাইল শপ করতে পারেন। দেশে প্রতিনিয়ত যানবাহনের সংখ্যা বাড়ছে। শুধু ঢাকা শহরেই নয়, গ্রামাঞ্চলেও বাড়ছে গাড়ির সংখ্যা। এসব পরিবহনের কারিগরি বিষয় দেখাশোনার জন্য পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারদের প্রয়োজন হয়। পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের আরেকটি বিভাগ হচ্ছে রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনিং। রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনার উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে চাকরি করতে পারেন। এসব পণ্য সার্ভিসিংয়ের জন্যও পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারদের প্রয়োজন হয়। শুধু দেশেই নয়, দেশের বাইরেও কাজের প্রচুর ক্ষেত্র রয়েছে।

একজন শিক্ষার্থী তাত্ত্বিক জ্ঞানের পাশাপাশি নিজেদের কারিগরি দক্ষতা বা ব্যবহারিক জ্ঞান যত বাড়াতে পারবেন, এ খাতে তত ভালো করতে পারবেন। নিজের দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকলে কাজের অভাব হবে না। সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরির ক্ষেত্রে বর্তমান বেতন স্কেলে দশম গ্রেডে বেতন পাওয়া যাবে। বেসরকারি চাকরি হলে প্রতিষ্ঠানভেদে বেতন ভিন্ন হয়।

 

ঘরে বসেই দরকারি পরামর্শ

পেশাবিষয়ক দরকারি সব পরামর্শ পেতে পারেন ঘরে বসেই। কোনো জিজ্ঞাসা থাকলে লিখুন আমাদের কাছে, পরামর্শ দেবেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা। খামের ওপর লিখতে হবে ‘ক্যারিয়ার কনসালট্যান্সি’।

আমাদের ঠিকানা : বিভাগীয় সম্পাদক, চাকরি আছে, কালের কণ্ঠ, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা।

অথবা ই-মেইল করুন : chakriache@kalerkantho.com ঠিকানায়


মন্তব্য