kalerkantho


সিরিয়ায় কুর্দি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবে তুরস্ক

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সিরিয়ার উত্তর-পূর্বে মার্কিন সমর্থনপুষ্ট একটি কুর্দিপ্রধান মিলিশিয়া বাহিনী গঠনের খবর বেরোনোর পর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান আবার বলেছেন, সিরিয়ায় কুর্দি মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে তুর্কি সামরিক অভিযান ‘অত্যাসন্ন’।

এই মিলিশিয়া গঠনের মার্কিন পরিকল্পনা নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছে সিরিয়া ও রাশিয়াও। কিন্তু সবচেয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান। তিনি একে ‘সন্ত্রাসী বাহিনী’ বলে আখ্যায়িত করে একে আঁতুড়ঘরেই ধ্বংস করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন।

এরদোয়ান বলেছেন, উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ায় আফরিন নামে যে কুর্দি এলাকা আছে সেখানে সামরিক অভিযান যেকোনো সময় শুরু হতে পারে। সেখানে ওয়াইপিজি নামে কুর্দি মিলিশিয়াদের ওপর এর মধ্যেই গোলাবর্ষণ করা হচ্ছে।

তুরস্কের ক্ষোভের একটা বড় কারণ হলো, ৩০ হাজার সদস্যের এই বাহিনীর অর্ধেকই হবে কুর্দি এবং আরব এসডিএফ যোদ্ধা। তুরস্ক সব সময়ই এই এসডিএফকে মার্কিন নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন যে সমর্থন দিচ্ছে তার বিরোধিতা করে আসছে। কারণ এসডিএফের প্রধান অংশই লোক কুর্দি পিপলস প্রটেকশন ইউনিট বা ওয়াইপিজির যোদ্ধারা।

তুরস্ক মনে করে, এই ওয়াইপিজি হচ্ছে আসলে নিষিদ্ধ কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকের একটি সম্প্রসারিত অংশ। তারা তিন দশক ধরে তুরস্কের ভেতরে যে কুর্দি জনগোষ্ঠী বাস করে, তাদের স্বায়ত্তশাসনের জন্য যুদ্ধ করে চলেছে। সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য