kalerkantho


মিসরে আবার প্রার্থী হচ্ছেন সিসি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



মিসরে আবার প্রার্থী হচ্ছেন সিসি

মিসরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানিয়েছেন। আগামী মার্চে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে গত শুক্রবার এ ঘোষণা দেন দেশটির সামরিক বাহিনীর সাবেক প্রধান সিসি। ২৬ থেকে ২৮ মার্চ অনুষ্ঠেয় প্রথম দফা নির্বাচনে সিসি জয় পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিসির শাসনে মিসরে কিছুটা হলেও স্থিতিশীলতা ফিরে এসেছে। কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, কঠোর অর্থনৈতিক সংস্কার জনগণের রুজি-রোজগারে প্রভাব ফেলায় এবং ভিন্নমতাবলম্বীদের ওপর দমন-পীড়ন চালানোয় সিসির জনপ্রিয়তা হ্রাস পেয়েছে।

অন্যদিকে তাঁর সমর্থকরা বলছে, উত্তর সিনাই অঞ্চলে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হামলাসহ নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জগুলোর মুখে দেশকে স্থিতিশীল করতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। সিসি মিসরকে সঠিক পথে ফেরাতে ঠিক সিদ্ধান্তই নিচ্ছেন।

ভাষণে সিসি বলেন, ‘আজ আমি আপনাদের স্পষ্টভাবে জানাচ্ছি, আমি এই প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব। আমি আশা করছি আমার প্রার্থিতা অনুমোদন ও গ্রহণ করবেন আপনারা।’ এ সময় তাঁর সমর্থকরা উল্লাস প্রকাশ করে এ ঘোষণাকে স্বাগত জানান।

ভাষণে সিসি প্রথম মেয়াদে তাঁর সরকারের সাফল্যের ফিরিস্তি তুলে ধরেন। এর মধ্যে কয়েক বছরের রাজনৈতিক অস্থিরতার ও অর্থনীতিতে অস্থিতিশীলতার পর অর্থনৈতিক পুনরুজ্জীবনের বিষয়টি উল্লেখযোগ্য।

প্রথম দফা নির্বাচনে কোনো প্রার্থী ৫০ শতাংশ ভোট না পেলে ২৪ থেকে ২৬ এপ্রিল দ্বিতীয় দফা ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইচ্ছুক প্রার্থীদের ২০ থেকে ২৯ জানুয়ারির মধ্যে নিবন্ধন করতে হবে।

তুরস্কের নির্বাচিত নেতা মুসলিম ব্রাদারহুড পার্টির মোহাম্মদ মুরসিকে এক অভ্যূত্থানের মাধ্যমে সরিয়ে ক্সমতা গ্রহণ করেন  সেই সময়ের সেনাপ্রধান সিসি। পরে তিনি বৈধতা পেতে নির্বাচনেও অংশ নেন এবং জয় পান। এবার দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য প্রার্থিতা করছেন সিসি। এবারও তাঁর জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য