kalerkantho


অলিম্পিকপূর্ব সাত শিল্পীর দ. কোরিয়া সফর হঠাৎ স্থগিত

পিয়ংইয়ংয়ের কাছে ব্যাখ্যা চায় সিউল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



শীতকালীন অলিম্পিকে অংশগ্রহণ নিয়ে দুই কোরিয়ার মধ্যে নতুন করে সংকট তৈরি হয়েছে। অলিম্পিকের আগে উত্তর কোরিয়ার সাত শিল্পীর যে দলটি দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার কথা ছিল, তা হঠাৎ করেই পিয়ংইয়ং স্থগিত করে দিয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার দাবি, এ ধরনের সিদ্ধান্তের কোনো কারণ পিয়ংইয়ং (উত্তর কোরিয়ার রাজধানী) জানায়নি। এ কারণে তাদের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।

আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কোরিয়ায় বসবে এবারের শীতকালীন অলিম্পিকের আসর। তাতে উত্তর কোরিয়া অংশগ্রহণ করবে কি না, তা নিয়ে সম্প্রতি বৈঠকে বসেন দুই কোরিয়ার কর্মকর্তারা। দুই বছরেরও বেশি সময় পর তাদের মধ্যে ওই বৈঠক হয়। তাতে খেলোয়াড়, শিল্পীসহ বড় একটি প্রতিনিধিদল পাঠাতে রাজি হয় পিয়ংইয়ং। এমনকি অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক পতাকা নিয়ে হাঁটতে রাজি হয় তারা।

ওই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ রবিবার উত্তর কোরিয়ার সাত শিল্পীর একটি দল সিউল (দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী) যাওয়ার কথা ছিল। দলের নেতৃত্বে আছেন ‘বিতর্কিত’ ব্যান্ড তারকা হিওন সং-ওল। অলিম্পিকের যেসব ভেন্যুতে দুই কোরিয়ার শিল্পীদের যৌথভাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করার কথা, সেগুলো পরিদর্শন করতেই প্রতিনিধিদলটির সিউলে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পিয়ংইয়ং হঠাৎ করেই সফরটি স্থগিত করে দেয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার আন্ত কোরীয় সমন্বয় বিষয়ক মন্ত্রী চো মিউং-গিওন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা ফ্যাক্সযোগে উত্তর কোরিয়াকে সকাল ১১টা ২০ মিনিটে (শনিবার) একটি বার্তা পাঠিয়েছি। ওই বার্তায় আমরা তাদের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা আমাদের অবস্থান তাদের জানিয়ে দিয়েছি। জানিয়েছি যে প্রতিনিধিদলটির সফর উপলক্ষে আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতিই নেওয়া ছিল। সঙ্গে এও বলেছি যে দুই কোরিয়া চাইলে সফরের সময়সূচি নতুন করে নির্ধারণ করা যেতে পারে।’

উত্তর কোরিয়া ওই সফর স্থগিত করেছে, নাকি স্থায়ীভাবে বাতিল করেছে, তা জানা যায়নি। জানা যায়নি এমন সিদ্ধান্তের কারণও। তবে ধারণা করা হচ্ছে, এ ধরনের সিদ্ধান্তের সঙ্গে প্রতিনিধিদলের প্রধান হিওন সং-ওলের সম্পর্ক রয়েছে।

২০১৩ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যমে খবর বেরোয়, পর্ন সিনেমায় অভিনয় করায় হিওনসহ ১৩ সংগীতশিল্পীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। পিয়ংইয়ং এ খবর ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেয় এবং কয়েক দিন পরেই রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের মাধ্যমে জনসমক্ষে আসেন হিওন।

দীর্ঘ দিন ধরেই দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম বলে আসছিল, হিওন একসময় উনের ‘গার্লফ্রেন্ড’ ছিলেন। এমনকি সম্প্রতি অলিম্পিক গেমস সামনে রেখে আবারও হিওনকে নিয়ে নানা ধরনের খবর ছাপছে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম। ধারণা করা হচ্ছে, এ ধরনের খবরে কিম জং উন ক্ষিপ্ত হয়েছেন।

‘ইউনিভার্সিটি অব নর্থ কোরিয়ান স্টাডিজ’-এর অধ্যাপক ইয়াং মু-জিন বলেন, ‘একটি অসমর্থিত সূত্রের বরাত দিয়ে হিওন ও উনকে জড়িয়ে যেসব কথাবার্তা বলা হচ্ছে, তা পিয়ংইয়ংকে অবশ্যই ক্ষিপ্ত করবে।’ এই ‘ক্ষিপ্ততা’র কারণেও কিম জং উন প্রতিনিধিদলের সফর স্থগিত করে থাকতে পারেন।

রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্র বৈঠক : এদিকে উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার কর্মকর্তারা। রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী ইগোর মরগুলোভকে উদ্ধৃতি করে দেশটির সংবাদ সংস্থা তাস গতকাল শনিবার এ খবর জানিয়েছে। মস্কোতে বৈঠকটি হবে; তবে দিনক্ষণ এখনো ঠিক করা হয়নি। মরগুলোভ জানান, অলিম্পিক গেমসের আগে উত্তর কোরিয়ার একটি প্রতিনিধিদলের রাশিয়া সফরের কথা রয়েছে।  সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য