kalerkantho


হকিংয়ের উক্তিতে স্রষ্টা-সৃষ্টি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



পদার্থবিদ্যার মতো কাঠখোট্টা বিষয় থেকে শুরু করে নিজের জীবন, আকাঙ্ক্ষাসহ নানা বিষয় নিয়ে বিভিন্ন সময় মন্তব্য করেছেন স্টিফেন হকিং। তাঁর তেমন কিছু মন্তব্য এখানে তুলে ধরা হলো :

মহাবিশ্ব : ‘এ মহাবিশ্ব যদি ভালোবাসার মানুষদের আবাসস্থল না হতো, তবে এটা তেমন কিছুই হতো না।’

বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার : ‘এটাকে আমি যৌনতার সঙ্গে তুলনা করব না, এটা আরো বেশি সময় টিকে থাকে।’

অধ্যবসায় : ‘জীবন যত কঠিন মনে হোক, সব সময় এমন কিছু থাকে যেটা আপনি করতে পারেন এবং সফল হতে পারেন।’

কৌতূহল : ‘মনে রাখবেন, নক্ষত্রের দিকে তাকাবেন, আপনার পায়ের দিকে নয়।’

বুদ্ধি : ‘যারা নিজেদের আইকিউ নিয়ে গর্ব করে, তারাই অভাগা।’

নিজের অচলাবস্থা : ‘আমি সব সময় আমার সীমাবদ্ধতাকে পরাস্ত করার চেষ্টা করেছি এবং যতটা সম্ভব একটা পূর্ণাঙ্গ জীবনযাপনের চেষ্টা করেছি। আমি বিশ্ব ভ্রমণ করেছি, অ্যান্টার্কটিকা থেকে শূন্য অভিকর্ষ পর্যন্ত। হয়তো আমি একদিন মহাশূন্যেও যাব।’

স্রষ্টা : ‘স্রষ্টার অস্তিত্ব হয়তো আছে। কিন্তু একজন স্রষ্টা ছাড়াই বিজ্ঞান এ মহাবিশ্বের ব্যাখ্যা করতে পারে।’

নারী : ‘আমার সহকারী আমাকে মনে করিয়ে দেয়, পদার্থবিদ্যায় আমার পিএইচডি থাকলেও নারী একটা রহস্য হয়েই থাকবে।’

মানুষের ত্রুটি : ‘ত্রুটি ছাড়া আপনার বা আমার অস্তিত্ব থাকত না।’

ভিনগ্রহবাসীদের সঙ্গে যোগযোগ : ‘আমার মনে হয়, সেটা একটা বিপর্যয় হবে। ভিনগ্রহবাসীরা সম্ভবত আমাদের চেয়ে অনেক অগ্রসর হবে। এ গ্রহে অগ্রসর জাতির সঙ্গে অধিকতর আদিম মানবের সাক্ষাতের ইতিহাস খুব সুখের কিছু নয়। আমার মনে হয়, আমাদের চুপচাপ থাকা উচিত।’

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা : ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রাথমিক যে রূপ আমরা এরই মধ্যে পেয়ে গেছি, সেটা খুব কাজের বলে প্রমাণিত হয়েছে। কিন্তু আমি ভাবছি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার পূর্ণ বিকাশ মানবজাতির সমাপ্তির কারণ হতে পারে।’

মৃত্যু : ‘আমি মৃত্যুভয়ে ভীত নই, কিন্তু মরার জন্য আমার তাড়াহুড়াও নেই। তার আগে আমি অনেক কিছু করতে চাই।’ সূত্র : সিএনএন, এএফপি।


মন্তব্য