kalerkantho


মাদক ঠেকাতে মৃত্যুদণ্ড আবার চালু করল শ্রীলঙ্কা

ফিলিপাইনের সাফল্য দেখে মাঠে সেনাবাহিনীও নামাবে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



মাদক অপরাধীদের দমনে প্রায় অর্ধদশক পর মৃত্যুদণ্ড পুনর্বহালের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার। দেশটির মন্ত্রিসভা মাদকসংক্রান্ত অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ শাস্তি ফিরিয়ে আনার একটি প্রস্তাব গত মঙ্গলবার সর্বসম্মতভাবে অনুমোদন করেছে। কর্মকর্তারা বলছেন, ফিলিপাইন সরকারের সাফল্য দেখে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে মাদক অপরাধীদের নির্মূলে মাঠে সেনাবাহিনী নামানোর সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

গতকাল বুধবার শ্রীলঙ্কা সরকারের মুখপাত্র রাজিথা সেনারত্নে সাংবাদিকদের জানান, প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা গত মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে বিষয়টি উত্থাপন করেন। মন্ত্রিসভার সদস্যদের তিনি জানান, তিনি মাদক অপরাধীদের ফাঁসির পরোয়ানায় (ডেথ ওয়ারেন্ট) স্বাক্ষর করার জন্য প্রস্তুত। প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘মাদক অপরাধীদের মৃত্যুদণ্ডের সাজা না কমিয়ে এই মুহূর্ত থেকে আমরা তাদের ফাঁসির দড়িতে ঝোলাব।’

প্রসঙ্গত, শ্রীলঙ্কার আইনে থাকা মৃত্যুদণ্ড বা সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান বাতিল করা হয়নি। মূলত ১৯৭৬ সালে সরকার বিধানটি স্থগিত রাখে। তখন মৃত্যুদণ্ড পাওয়া ব্যক্তিদের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

মুখাপাত্র সেনারত্নে বলেন, কারাগারে এই মুহূর্তে ১৯ জন মাদক অপরাধী রয়েছে, যাদের মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন সাজা দেওয়া হয়েছিল।

এর আগে শ্রীলঙ্কার বুদ্ধ ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী গামিনি জয়বিক্রম পেরেরা সাংবাদিকদের বলেন, প্রেসিডেন্ট মাইত্রিপালা সিরিসেনা সম্প্রতি জানিয়েছিলেন, মাদক অপরাধের মতো গুরুতর অপরাধ দমনের জন্য সর্বোচ্চ শাস্তি পুনঃপ্রবর্তনের জন্য তিনি চাপের মধ্যে ছিলেন।’ সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য