kalerkantho


‘দুর্নীতির দায়ে পুজদেমনকে দেশে ফেরত পাঠানো হতে পারে’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



‘দুর্নীতির দায়ে পুজদেমনকে দেশে ফেরত পাঠানো হতে পারে’

স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালোনিয়ার পদচ্যুত প্রেসিডেন্ট কার্লেস পুজদেমনকে দেশদ্রোহের দায়ে নয়, বরং দুর্নীতির দায়ে দেশে ফেরত পাঠানো হতে পারে—গতকাল বৃহস্পতিবার জার্মানির একটি আদালতের রায়ে এমন ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। এ রায়ের প্রশংসা করে পুজদেমন কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা অর্জনের লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন।

কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার দাবিতে গত বছর অক্টোবরে করা গণভোটে হেরে যাওয়ার পর কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে গ্রেপ্তার এড়াতে পুজদেমন পালিয়ে প্রথমে বেলজিয়ামে ও পরে জার্মানিতে চলে যান। স্পেন সরকারের করা মামলায় তাঁর ওপর ইউরোপীয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির জেরে গত মার্চে তাঁকে জার্মানিতে গ্রেপ্তার করা হয়। দেশদ্রোহের মামলায় বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর জন্য তাঁকে দেশে ফিরিয়ে নিতে চায় স্পেন সরকার। কিন্তু জার্মান আদালত গতকাল স্পেন সরকারের সে লক্ষ্যে বাদ সেধেছে।

জার্মানির একটি আদালত গতকাল রায় দেন, পুজদেমনের বিরুদ্ধে স্পেন সরকারের আনা দেশদ্রোহের অভিযোগ জার্মান আইনে দেশদ্রোহ, এমনকি জনগণের শান্তিভঙ্গের পর্যায়েও পড়ে না। তবে এ কাতালান রাজনীতিকের বিরুদ্ধে সরকারি তহবিল তছরুপের অভিযোগ আনা যেতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন এ জার্মান আদালত। কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা দাবিতে গণভোট করতে গিয়ে সরকারি তহবিল থেকে অর্থ ব্যয়ের বিষয়টিকে তছরুপের পর্যায়ে ফেলেছেন সংশ্লিষ্ট বিচারক। সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য