kalerkantho


ঢাবি কর্তৃপক্ষের অবস্থান ব্যাখ্যা

প্রস্তুতি ছাড়াই সাত কলেজ অধিভুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



প্রস্তুতি ছাড়াই সাত কলেজ অধিভুক্তি

রাজধানীর সাত কলেজ অধিভুক্তিতে দফায় দফায় পক্ষে-বিপক্ষে আন্দোলনের মধ্যে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অধিভুক্ত সাত কলেজ নিয়ে তারা বলছে, ‘পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়া অপরিকল্পিতভাবে’ কলেজগুলো অধিভুক্ত করায় এ সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

গতকাল শনিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দপ্তর থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়ে সাত কলেজের কার্যক্রম কিভাবে পরিচালিত হবে সে সম্পর্কেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। গতকাল কালের কণ্ঠে ‘দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে পিষ্ট সাত কলেজ’ শীর্ষক প্রধান প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটিতে পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়া ও অপরিকল্পিতভাবে অধিভুক্তির বিষয়ে বিস্তারিত বলা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, স্বতন্ত্র লোকবল ও ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত/উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম পরিচালিত হয় বিধায় এই সাতটি কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনায় সমস্যা হবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও সামগ্রিক কার্যক্রমও বাধাগ্রস্ত হবে না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সাত কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত করতে নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এই নির্দেশনার পর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজগুলোর দায়িত্ব ছেড়ে দেয়। পূর্বপ্রস্তুতি না থাকায় প্রায় পাঁচ মাস কোনো কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আর দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের টানাটানিতে ভোগান্তিতে পড়ে সাত কলেজের দেড় লাখের বেশি শিক্ষার্থী।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, অধিভুক্ত কলেজের ভর্তি তথ্য ও আগে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার ফল যথাসময়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে না পাওয়ায় সংকট সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে পরীক্ষার ফল ও ক্লাসের তারিখ ঘোষণার দাবিতে গত এক বছরে তিন দফা আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কলেজ শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করায় সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল চেয়ে আন্দোলনে নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সাত কলেজের শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে অধিভুক্ত/ উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা-সম্পর্কিত বিষয়ে বিভ্রান্তি/অস্পষ্টতা দূর করতে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, অধিভুক্ত/উপাদানকল্প প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ কলেজ বা ইনস্টিটিউট পাঠদান ও পরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করবে। অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেওয়া হবে না। আগের মতো নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে তারা পরিচয়পত্র সংগ্রহ করবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন/পরিবহন/ স্বাস্থ্যসেবা/পাঠাগার ব্যবহারের সুযোগ পাবে না তারা। তাদের ভর্তি, ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা এবং ব্যাংকিং কার্যক্রম নিজ নিজ কলেজ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষাসহায়ক কার্যক্রমও নিজ নিজ কলেজ ক্যাম্পাসে পরিচালিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস শুধু এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্যই উন্মুক্ত।


মন্তব্য