kalerkantho


সাত শ মডেলের পণ্য নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০




সাত শ মডেলের পণ্য নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন

মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড়

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এবার ৬০টিরও বেশি ইলেকট্রনিকস, ইলেকট্রিক্যাল, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস প্রদর্শন এবং বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে। এসব পণ্যের রয়েছে সাত শতাধিক বৈচিত্র্যময় মডেল। এবারের মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের নতুন আকর্ষণ ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস। ক্রেতারা যাতে এক ছাদের নিচেই তাদের দরকারি সব ইলেকট্রনিকস, ইলেকট্রিক্যাল, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস, ল্যাপটপ ও স্মার্টফোনসহ আইসিটি পণ্য দেখতে এবং কিনতে পারে সে জন্যই মেলায় সর্বোচ্চসংখ্যক পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে। ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক (পিআর অ্যান্ড মিডিয়া) মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, ক্রেতা-দর্শনার্থীদের কাছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন প্রযুক্তি পণ্য তুলে ধরতেই ওয়ালটনের এত সব চমক। এবার সম্পূর্ণ নতুন পণ্য হিসেবে এসেছে এলজিপি, এলডিপি, মাস্টারব্যাচ, অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল অ্যান্ড বোথ সাইড টেপ, প্লাস্টিক কম্পোনেন্ট, স্টিল কম্পোনেন্টসহ বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস।

এবারের মেলায় বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি আইওটি বেজড স্মার্ট ফ্রিজ ও এসি, এলইডি টেলিভিশনসহ বেশ কিছু নতুন মডেলের হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস এনেছে ওয়ালটন। এসিতে নতুন যুক্ত হয়েছে আয়োনাইজার প্রযুক্তি, যা বিশুদ্ধ বায়ুপ্রবাহ নিশ্চিত করে। ওয়ালটন ল্যাপটপে নতুন যুক্ত হয়েছে সপ্তম প্রজন্মের কোরআই-৫ প্রসেসর সমৃদ্ধ ১৫.৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের ল্যাপটপ। প্রদর্শিত হচ্ছে ওয়ালটন কারখানায় তৈরি দেশের প্রথম বড় পর্দার মাল্টিটাচ কম্পো টিভি।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের সমন্বয়ক শাহ শহীদ চৌধুরী জানান, ক্রেতাদের চাহিদা, রুচি ও ক্রয়সক্ষমতার কথা বিবেচনা করে সাত শর বেশি মডেলের পণ্য এনেছে তারা। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রায় সব পণ্যের প্রযুক্তি, ডিজাইন ও কালারে আনা হয়েছে নতুনত্ব। এবার সাত হাজার বর্গফুট আয়তনের দৃষ্টিনন্দন তিনতলা প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন (নম্বর-২৩) করেছে ওয়ালটন। ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের ইনচার্জ মো. শফিকুল আলম জানান, নিচতলায় প্রদর্শিত হচ্ছে ফ্রিজ, এসি, এলইডি টেলিভিশনসহ অন্যান্য হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস। দ্বিতীয় তলায় আছে ১৭ মডেলের কম্প্রেসর, ২৭ মডেলের ল্যাপটপ, ৪৭ মডেলের স্মার্টফোন, ১০ মডেলের ট্যাব, ১৯ মডেলের জেনারেটর।


মন্তব্য