kalerkantho


পর্যটক আকর্ষণে বাজেটে বরাদ্দ বাড়বে কমবে কর হার

পর্যটন খাতে প্রণোদনা দেবে ভারত

বাণিজ্য ডেস্ক   

৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



পর্যটন খাতে প্রণোদনা দেবে ভারত

বিদেশিদের কাছে ভারতের অন্যতম আকর্ষণ আগ্রার তাজমহল

আসছে কেন্দ্রীয় বাজেটে ভ্রমণ ও পর্যটন খাতে কর কমানোর পরিকল্পনা করছে ভারত সরকার। সেই সঙ্গে ২১০ বিলিয়ন ডলারের এ খাতে আরো প্রণোদনাও দেওয়া হবে। সরকারি একটি সূত্র জানায়, দেশের উদীয়মান এ খাতটিকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে কারণ এটি জোরালো প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক হবে সেই সঙ্গে কর্মসংস্থানেরও বড় উৎস।

বিশ্লেষকরা বলছেন, এর ফলে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ জনবহুল দেশটিতে দেশি-বিদেশি পর্যটক বাড়বে। যেখানে কম মূল্যস্ফীতি এবং আয় বাড়ায় মানুষের জীবনযাত্রার পরিবর্তন ঘটছে। বিশেষ করে ভারতের ২৫০ মিলিয়ন মধ্যবিত্ত শ্রেণির ভোগের ধারায়ও পরিবর্তন আসছে। বিমান সংস্থাগুলোও গত বছর দেশটিতে বেশ কিছু নতুন রুট উদ্বোধন করেছে।

সেপ্টেম্বরে শেষ হওয়া অর্থবছরে ভারতের পর্যটন খাতে প্রবৃদ্ধি এসেছে ১০ শতাংশ। যেখানে এক বছর আগের এ সময়ে প্রবৃদ্ধি ছিল ৮ শতাংশ। পর্যটনশিল্পসংশ্লিষ্টরা জানান, এ খাতে বর্তমানে ৪ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান। আগামী এক দশকে আরো ১ কোটি চাকরি তৈরি হবে।

ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, পর্যটন খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে আমরা নতুন কিছু পদক্ষেপ ঘোষণা করব। অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি হোটেল খাতে কর ২৮ শতাংশের নিচে নামাতে চান, এর পাশাপাশি বেসরকারি বিনিয়োগ আকর্ষণে প্রণোদনাও দেবেন। যদি পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়ন হয় তবে ইনডিগো, জেট এয়ারওয়েজসহ বিভিন্ন বিমান সংস্থা এবং হোটেলগুলোও উপকৃত হবে। এতে ট্যুর অপারেটর কম্পানিগুলোও লাভবান হবে।

ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অব টুর অপারেটরসের (আইএটিও) প্রেসিডেন্ট প্রণব সরকার বলেন, হোটেল কক্ষ এবং ভ্রমণে ভারতে পর্যটকদের গড়ে ৩০ শতাংশ করে কর দিতে হয়। যেখানে সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড এবং ইন্দোনেশিয়ায় এ কর ১০ শতাংশের কম। আরেকজন সরকারি কর্মকর্তা জানান, এবারের বাজেটে পর্যটন অবকাঠামো নির্মাণে উল্লেখযোগ্যহারে বরাদ্দ বাড়ানো হবে। সেই সঙ্গে নতুন হোটেল নির্মাণে বিনিয়োগ করলে আয়কর অব্যাহতির সীমাও বাড়ানো হবে।

ভারতের ট্যুর অপারেটররা জানান, মজুরি বাড়ায় অভ্যন্তরীণ পর্যটন বাজার বিকশিত হয়েছে। ২০১৭ সালের প্রথম ১১ মাসে ৯০ লাখ বিদেশি ভারত ভ্রমণ করেছে, যা এক বছর আগের তুলনায় ১৫.৬ শতাংশ বেশি। এ ছাড়া এ খাতের ৮৮ শতাংশই অভ্যন্তরীণ পর্যটক, যারা হোটেল ও ট্রাভেল বুকিংয়ের জন্য অনলাইন পোর্টাল ব্যবহার করেন। রয়টার্স।


মন্তব্য