kalerkantho


ফুটবল সমর্থক ও চিন্তার সীমাবদ্ধতা

১২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



পুরো বিশ্বকে উচ্ছ্বাসে মাতিয়ে ক্রমেই শেষ দৃশ্যের দিকে ধাবিত হচ্ছে রাশিয়ায় চলমান বিশ্বকাপ ফুটবল। নানা অদ্ভুত ও গৌরবময় ঘটনা সৃষ্টি করেছে বিশ্বকাপ ফুটবলে অংশগ্রহণকারী ৩২টি দল। অন্যান্য দেশের পাশাপাশি বিশ্বকাপের এই উন্মাদনা বাংলাদেশেও সৃষ্টি হয়েছে। শুরু হয়ে যায় ভালোবাসার দলটির জন্য সমর্থকদের নানা আয়োজন ও কর্মকাণ্ড। তবে তা যেন মাত্রাতিরিক্ত। সমর্থকরা নিজের দলকে সাপোর্ট করতে গিয়ে পরস্পরের প্রতি আক্রমণাত্মক হয়ে যায়। খেলা অবশ্যই বিনোদনের জন্য। যুবসমাজকে নানা অপকর্ম থেকে ফেরাতে খেলাধুলার অবদান অনেক। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যাচ্ছে, খেলাধুলাকে কেন্দ্র করে রক্তপাতের ঘটনাও ঘটেছে। এটা কাম্য নয়। খেলাকে শুধু বিনোদনের জন্যই রাখা উচিত। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও সমর্থকদের মাঝে অনেকটা যুদ্ধাবস্থা তৈরি হয়েছে। এক দলের সমর্থকরা অন্য দলের সমর্থন করা দলের পতাকা, খেলোয়াড় নিয়ে কটূক্তি ও বিশ্রী ধরনের অবমাননা বা ট্রল করা শুরু করছে। খেলায় বিপক্ষীয়দের নিয়ে, তাদের সমর্থন করা দেশ ও খেলোয়াড় নিয়ে সমালোচনা করা নতুন কিছু নয়। তবে আমাদের মনে রাখা উচিত, সমালোচনা সব সময় গঠনমূলক হওয়া উচিত।

কোনো ব্যক্তি কিংবা তার জাতীয়তাকে যেন নিকৃষ্টভাবে ব্যঙ্গ করা না হয়। আমাদের মনে রাখা দরকার, খেলাধুলা শুধু বিনোদনের মাধ্যমই নয়, বিশ্বভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতির নিদর্শন। এ ব্যাপারে আমাদের সচেতনতা বৃদ্ধি একান্ত জরুরি।

রজত আর্য

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।



মন্তব্য