kalerkantho


করের টাকার যেন অপচয় না হয়

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড এবং একমাত্র শিক্ষাই একটি জাতিকে সার্বিক উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিতে পারে। দেশ ও জাতির উন্নয়নে শিক্ষা ও শিক্ষকের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অথচ এমপিওভুক্তি বা বেতনের দাবিতে অথবা সম্মান রক্ষার দাবিতে অন্যান্য দপ্তরের শ্রমিক-কর্মচারীদের মতো শিক্ষকরা রাস্তায় নামতে বাধ্য হচ্ছেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছেড়ে তাঁরা দিনের পর দিন রাস্তায় পড়ে থাকবেন, এটা দেশ ও জাতির জন্য লজ্জাজনক। শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে শিক্ষাব্যবস্থাকে শৃঙ্খলার মধ্যে ফিরিয়ে আনতে হবে। যাচাই-বাছাই করে যোগ্য শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হোক। কিন্তু ঢালাওভাবে এমপিওভুক্ত করা উচিত হবে না। জনগণের করের টাকার যেন অপচয় না হয়। একটি নীতিমালার ভিত্তিতে শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ বা এমপিওভুক্ত করা উচিত। নিয়োগে দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, অনিয়ম ও রাজনৈতিক প্রভাব থাকার কারণে অনেক অযোগ্য ব্যক্তিও শিক্ষকতা পেশায় আসছেন। বেশির ভাগ শিক্ষক খুব দ্রুত বিপুল অর্থ-বিত্তের মালিক হতে চান। আশা করি শিক্ষকসমাজ নিজেদের দাবি আদায়ে যেভাবে এগিয়ে এসেছে, একইভাবে শিক্ষা ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতেও সক্রিয় হবে।

 

বিপ্লব বিশ্বাস

ফরিদপুর।


মন্তব্য