kalerkantho


ট্রাফিক আইন মানতে হবে

২৬ মে, ২০১৮ ০০:০০



ঈদের সময় ঘরে ফিরতে মানুষকে হাজারো বিড়ম্বনার সম্মুখীন হতে হয়। এ বিড়ম্বনা থেকে সাধারণ মানুষকে মুক্ত করে ঈদের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে এখন থেকে রাস্তাঘাটের উপযুক্ত সংস্কার করা, খানাখন্দ ভরাট করাসহ জাতীয় সমস্যাগুলোর জরুরি সমাধান করতে হবে। ঈদ উপলক্ষে যানবাহনের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অত্যধিক যাত্রী বহন ও যাত্রীদের জিম্মি করে মাত্রাতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরত রাখতে হবে। প্রয়োজনে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। ট্রাফিক পুলিশের অপ্রতুলতা ও ক্ষেত্রবিশেষে গাফিলতিহেতু সংশ্লিষ্ট ড্রাইভারদের যথেচ্ছ গাড়ি চালানো বন্ধ করতে হবে। যত্রতত্র অবৈধ গাড়ি পার্কিং না করা, অনিয়মতান্ত্রিকভাবে ইউটার্ন না নেওয়া এবং অন্য সব যানবাহন, রিকশা, ভ্যান, ট্রাক, লরিসহ সব ড্রাইভারকে যথাযথ ট্রাফিক আইন মানতে বাধ্য করতে হবে। সড়ক-মহাসড়কের ওপর পণ্যের মেলা ও হাটবাজার বিশৃঙ্খলভাবে না বসিয়ে যাতায়াতের জন্য রাস্তার যে প্রশস্ততা আছে তার উপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। স্বল্পপাল্লার শহর সার্ভিস গাড়িগুলো ঈদের আগে অবৈধভাবে দূরপাল্লার যাত্রী বহনে ব্যবহার করে থাকে, এটি বন্ধ করতে হবে। ঈদ উপলক্ষে ট্রাফিক তদারকিসহ সম্ভাব্য সহযোগিতার ক্ষেত্রে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কাউট, রোভার, এনসিসিসহ সংশ্লিষ্ট ট্রেইন্ড ভলান্টিয়ার সেবা সংস্থাগুলোকে জেলা পুলিশ প্রশাসনের তদারকিতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

এম আনিসুর রহমান

শেখেরখিল, বাঁশখালী, চট্টগ্রাম।

 


মন্তব্য