kalerkantho


এবার অস্ট্রেলিয়া গেলেন প্রধান বিচারপতির স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



এবার অস্ট্রেলিয়া গেলেন প্রধান বিচারপতির স্ত্রী

ফাইল ছবি

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার চার দিনের মাথায় তাঁর সহধর্মিণী সুষমা সিনহাও অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লেন। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের এসকিউ-৪৪৭ নম্বর ফ্লাইটে করে তিনি অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন।

এর মধ্য দিয়ে প্রধান বিচারপতির স্ত্রীকে বিদেশ যেতে দেওয়া হয়নি—এমন গুজবেরও অবসান হলো।

প্রধান বিচারপতির স্ত্রীর ঢাকা ছাড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা।

গত ৩ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত এক মাস ৯ দিনের ছুটিতে থাকা প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা গত ১৩ অক্টোবর রাতে অস্ট্রেলিয়া যান। সেদিন রাতে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন সুষমা সিনহা। প্রধান বিচারপতিকে বিদায় দিয়ে তিনি বাসায় ফেরেন। এরপর গুজব ছড়িয়ে পড়ে যে সুষমা সিনহাকে বিদেশ যেতে দেওয়া হয়নি।

এর আগে গত ৫ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার ভিসার জন্য আবেদন করেন প্রধান বিচারপতি। সেদিন সকাল সাড়ে ১১টায় বাসা থেকে বেরিয়ে যান প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ও তাঁর স্ত্রী সুষমা সিনহা। তাঁরা গুলশান-২-এ দেশটির ভিসা সেন্টারে যান।

সেখানে দুপুর সাড়ে ১২টার মধ্যে তাঁদের বায়োমেট্রিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এর পরই তাঁরা বাসায় ফিরে আসেন। এরপর তাঁরা দুজনই অস্ট্রেলিয়ার ভিসা পান।

উচ্চ আদালতের বিচারক অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে পুনর্বহালের বিধানসংবলিত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ বলে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখে গত ৩ জুলাই রায় দেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের সাত বিচারপতির বেঞ্চ সর্বসম্মতভাবে ওই রায় দেন। পূর্ণাঙ্গ রায় গত ১ আগস্ট প্রকাশিত হয়। মূল রায়টি লিখেছেন প্রধান বিচারপতি নিজে। ষোড়শ সংশোধনী বাতিল বিষয়ে সব বিচারপতিই একমত হন। তবে এ রায় নিয়ে সরকার ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সরকারদলীয় নেতা, মন্ত্রী ও সরকার সমর্থক আইনজীবীরা ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছিলেন। প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবিও তোলা হয়। সরকার সমর্থক আইনজীবীরা প্রধান বিচারপতির অনুষ্ঠান বর্জন করতে আইনজীবীদের প্রতি আহ্বান জানান। তাঁরা আন্দোলনে নামেন। এ ছাড়া আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় নিয়ে সংসদ অধিবেশনেও ব্যাপক সমালোচনা হয়। এ অবস্থায় ছুটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় যান প্রধান বিচারপতি। যদিও যাওয়ার সময় গণমাধ্যমকে প্রধান বিচারপতি বলেছেন, তিনি পালিয়ে যাচ্ছেন না। আবার দেশে ফিরে আসবেন।


মন্তব্য