kalerkantho


রংপুর সিটি নির্বাচন

নারী মেয়রপ্রার্থীসহ দেড় শতাধিক প্রার্থীর মনোনয়নপত্র গ্রহণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর   

১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে একমাত্র নারী মেয়রপ্রার্থীসহ গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত দেড় শতাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন। সব কিছু ঠিক থাকলে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে প্রার্থীসংখ্যা চার শতাধিক ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার সুভাষ চন্দ্র।

স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন সুইটি আঞ্জুম। গত সোমবার তিনি রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

মনোনয়নপত্র সংগ্রহ শেষে সাংবাদিকদের সুইটি আঞ্জুম বলেন, ‘নারীর প্রতি বৈষম্য দূর করতে নারীদেরকেই সাহসী হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। আমি একজন নারী হয়ে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি, যাতে অন্য নারীরাও সাহস পাবে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে। ’

সুইটি আঞ্জুম আরো বলেন, ‘দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে নারী ও শিশুদের অধিকার নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। ২০১৫ সালে বেগম রোকেয়া পদক, নারী শান্তি পদক, অমর একুশে স্মৃতি পদকসহ বিভিন্ন স্বীকৃতি পেয়েছি। নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া নারীদের যে আলোর পথ দেখিয়ে গেছেন, সেই পথে আমি এগিয়ে যাচ্ছি। ’

রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল পর্যন্ত মেয়র পদে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, আওয়ামী লীগের প্রার্থী শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ (জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের ভাতিজা), বীর-উত্তম আব্দুল মজিদ, সুইটি আঞ্জুম, বিএনপির কাউছার জামান বাবলা (দলের পক্ষে নিলেও দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি) ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের এ টি এম গোলাম মোস্তফা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এ ছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলর ও কাউন্সিলর পদের জন্য শতাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

এর আগে গত ৫ নভেম্বর রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।   ঘোষিত তফসিলে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ, জমাদানের জন্য ৫ নভেম্বর থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত সময় নির্ধারণ করা হয়। তফসিল ঘোষণার পর থেকে ১১ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করছেন প্রার্থীরা। জমাদান শেষ হলে তা চূড়ান্ত করা হবে ২৭ নভেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ও আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু হবে ৪ ডিসেম্বর। ভোটগ্রহণ ২১ ডিসেম্বর।

এদিকে রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ করতে কমিটি গঠন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।   রংপুরের বিভাগীয় কমিশনারের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের এ কমিটি করা হয়েছে। সোমবার নির্বাচন কমিশনের এক চিঠিতে এ কমিটি গঠনের কথা জানানো হয় বলে নিশ্চিত করেছেন আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা সুভাষ চন্দ্র সরকার। কমিটিতে রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি, বিজিবির সেক্টর কমান্ডার, রংপুরের ডিসি, রিটার্নিং অফিসারসহ বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাকে রাখা হয়েছে।

নির্বাচন কর্মকর্তা আরো জানান, রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করার জন্য হাই প্রোফাইল পর্যবেক্ষক টিম গঠন করছে ইসি। এ ক্ষেত্রে স্বয়ং নির্বাচন কমিশনাররাই নির্বাচনী এলাকা পরিদর্শন করবেন। কারো বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগের সত্যতা পেলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করা হবে।


মন্তব্য