kalerkantho


শ্যামপুর কমিউনিটি ক্লিনিক

ওষুধ না পেয়ে নারী চিকিত্সককে পেটাল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রাজশাহী দুর্গাপুর উপজেলার শ্যামপুর কমিউনিটি ক্লিনিকে ওষুধ না পেয়ে এক নারী চিকিত্সকের (সিএইচসিপি) ওপর হামলা চালিয়েছে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। তাঁর নাম আলফা খাতুন (৩২)।

তাঁকে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

আহত আলফা খাতুন সাংবাদিকদের জানান, গতকাল সকাল ১১টার দিকে দুর্গাপুর উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান, ছাত্রলীগকর্মী মাহাফুজ হোসেন ও মোস্তাকিনসহ চার-পাঁচজন শ্যামপুর কমিউনিটি ক্লিনিকে যায় চিকিত্সার জন্য। এরপর প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী আলফার কাছ থেকে ওষুধ দাবি করেন ছাত্রলীগ নেতা মশিউর রহমান। এ সময় ওষুধ নেই বলে জানিয়ে দেন আলফা। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ছাত্রলীগ নেতা মশিউর রহমানসহ তাঁর সহযোগীরা আলফা খাতুনকে ধরে মারধর করতে শুরু করে। এ সময় তারা কমিউনিটি ক্লিনিকে ভাঙচুর চালায়। এদিকে খবর পেয়ে আলফা খাতুনের স্বামী ও নওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি গোলাম ফারুক ঘটনাস্থলে গেলে তাঁর সঙ্গেও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

আলফা খাতুন আরো বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতা মশিউর আমার কাছে ক্লোফেনাক সিরাপ দাবি করেন। কিন্তু ওই সিরাপ নেই বলার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি আমার ওপর চড়াও হন। পরে সবাই ধরে আমাকে মারপিট শুরু করে। ’

দুর্গাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন জানান, মশিউর রহমান যদি শ্যামপুর কমিউনিটি ক্লিনিকের চিকিত্সকের ওপর হামলা করেন, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে সংগঠনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দুর্গাপুর থানার ওসি রুহুল আলম জানান, খবর পাওয়ার পারই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


মন্তব্য