kalerkantho


১২ জানুয়ারি শুরু বিশ্ব ইজতেমা

প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



টঙ্গীতে আগামী ১২ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে তিন দিনের প্রথম পর্বের বিশ্ব ইজতেমা। এ উপলক্ষে ইজতেমা ময়দানে ঘন কুয়াশা, কনকনে শীত আর হিমশীতল বাতাস উপেক্ষা করে গতকাল শুক্রবার ভোর থেকে মানুষের ঢল নামে। স্বেচ্ছাশ্রমে অংশ নিতে প্রায় ২০ হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ এখানে ছুটে আসে। এ ছাড়া স্থায়ীভাবে প্রতিদিন ১০ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবী এখানে কাজ করছে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

চার দিন বিরতি দিয়ে ১৯ জানুয়ারি শুরু হবে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। প্রথম পর্বে ১৬টি এবং দ্বিতীয় পর্বে আরো ১৬টি জেলার মুসল্লি অংশ নেবে। অবশিষ্ট ৩২ জেলার মুসল্লি অংশ নেবে আগামী বছর। স্থান সংকুলান না হওয়ায় বিশ্ব ইজতেমা দুই পর্বে ভাগ করা হয়। দেশের অর্ধেক জেলার মুসল্লি নিয়ে এবারের ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

আসন্ন বিশ্ব ইজতেমার সার্বিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ক জিম্মাদার প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দিন জানান, ইজতেমার প্রায় ৯০ শতাংশ কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজার হাজার মানুষ এখানে কাজ করতে আসছে। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত বিভিন্ন বয়সের মানুষ স্বেচ্ছাশ্রমে যোগ দিচ্ছে। তুরাগতীরে ১৬০ একর এলাকাজুড়ে চট দিয়ে বিশাল প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে। পুরো প্যান্ডেলকে জেলাভিত্তিক খেত্তায় বিভক্ত করা হয়েছে।

নিরাপত্তার বিষয়টিকে এবার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন-অর-রশিদ ছুটিতে থাকায় তাঁর পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ জানান, ইজতেমার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। পুলিশ, র‌্যাবসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন পর্যায়ের ১১ হাজারের বেশি সদস্য ইজতেমা চলাকালে মোতায়েন থাকবে। এরই মধ্যে ময়দানের চারপাশে পর্যবেক্ষণ টাওয়ার বসানো হয়েছে। প্রবেশপথগুলোতে দেহ তল্লাশির ব্যবস্থা থাকবে। প্যান্ডেলের প্রতিটি খেত্তায়, তুরাগ নদ ও আকাশপথে কড়া নজরদারি থাকবে। ইতিমধ্যে শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার স্টেডিয়ামসহ আশপাশে বেশ কয়েকটি পুলিশ কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে।


মন্তব্য