kalerkantho


সামিট-পিএসএ মেরিন চুক্তি সই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সামিট পাওয়ারের সহযোগী প্রতিষ্ঠান সামিট এলএনজির সঙ্গে সিঙ্গাপুরের পিএসএ মেরিনের ১৫ বছর মেয়াদি চুক্তি সই হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী সামিট এলএনজির এফএসআরইউ টার্মিনালের এলএনজি জাহাজের নোঙর করানো, মুরিং, পাইলট ও কর্মকর্তাদের স্থানান্তর সেবায় প্রয়োজনীয় তিনটি এসকর্ট টাগবোট, একটি ফাস্ট ক্রুবোট এবং একটি অফশোর সাপ্লাই জাহাজ জোগান দেবে পিএসএ মেরিন। গতকাল শুক্রবার সামিট পাওয়ারের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০১৯ সালের প্রথম দিক থেকে সামিট এলএনজি এবং পিএসএ মেরিন যৌথভাবে বিদেশ থেকে আমদানি করা এলএনজি সরবরাহ শুরু করবে। চুক্তিতে সই করেন সামিট পাওয়ার চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান এবং পিএসএ ইন্টারন্যাশনালের গ্রুপ সিইও ট্যান চুং মেং। ওই সময় উপস্থিত ছিলেন সামিট পাওয়ারের সিইও অ্যান্ড এমডি আয়েশা খান, সিওও অরুন সেন এবং পিএসএ মেরিনের এমডি পিটার চুসহ অন্য কর্মকর্তারা।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে সামিট পাওয়ারের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান বলেন, ‘সামিট বাংলাদেশের ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন খাতের বৃহত্তম কম্পানি, যা বর্তমানে ১৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে, পাশাপাশি আরো ১০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন নির্মাণাধীন আছে এবং ২৪০০ মেগাওয়াট উন্নয়নাধীন রয়েছে। বাংলাদেশের ১৫ মিলিয়ন টন এলএনজির চাহিদা রয়েছে এবং সামিট এই অবকাঠামো সরবরাহের লক্ষ্যে কাজ করছে। আমাদের প্রকল্পগুলো সম্পাদনে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় করপোরেশনগুলোর সঙ্গে সুনামের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে, তাই এ ক্ষেত্রে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মিলিয়ে পিএসএ মেরিনকে মনোনয়ন করাই স্বাভাবিক ছিল।’

সামিট এলএনজি কক্সবাজারের মহেশখালীতে সাগরে ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ করছে। ওই টার্মিনাল উৎপাদনে আসবে ২০১৯ সালের প্রথম দিকে। প্রতিদিন টার্মিনালটি থেকে ৫০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা হবে।


মন্তব্য