kalerkantho


আসামিদের স্বজনদের সংবাদ সম্মেলন

রূপাকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় পুনঃ তদন্ত দাবি

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



চলন্ত বাসে কলেজছাত্রী রূপাকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় আসামিদের স্বজনরা মামলার পুনঃ তদন্ত দাবি করেছে। গতকাল শনিবার টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা দাবি করেছে, বিচারাধীন মামলাটির আসামিরা নির্দোষ। তাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি নেওয়া হয়েছে। এমনকি যে বাসে ঘটনার কথা বলা হচ্ছে তা সঠিক নয়।

টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবে গতকাল দুপুরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগের ময়মনসিংহ মহানগর শাখার সহসভাপতি মাহবুবুর রহমান বাদল, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইয়াজ উদ্দিন নবী হোসেন, শ্রমিক নেতা জামাল উদ্দিন, যুবলীগ সদস্য আনোয়ার হোসেন নান্নু, আসামি শামীমের বড় বোন জান্নাতুল ফেরদৌসী, হাবীবের ছোট বোন ফাতেমা আক্তার শিল্পীসহ স্বজনরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করে বলা হয়, রূপা হত্যার ঘটনা গণমাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচার হওয়ায় পুলিশ সত্য উদ্ঘাটন না করেই চার্জশিট দিয়েছে। আটক আসামিদের জোরপূর্বক স্বীকারোক্তি আদায় করা হয়েছে। পিবিআইসহ পুলিশের অন্য কোনো ইউনিট তদন্ত করলে প্রকৃত সত্য বেরিয়ে আসবে। ঘটনাটি মুক্ত পরিবহন নামের অন্য একটি বাসে ঘটেছে এবং তার প্রত্যক্ষদর্শী পরিবহন শ্রমিক বিল্লাল হোসেন। ছোয়া পরিবহনের স্টাফরা এ ঘটনায় জড়িত নয়।

গত বছরের ২৫ আগস্ট বগুড়া থেকে ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে চলন্ত বাসে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার হন জাকিয়া সুলতানা রূপা। মধুপুর এলাকার বনাঞ্চলের পাশ থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ গ্রেপ্তার করে ছোয়া পরিবহনের চালক হাবিব, সুপারভাইজার সফর, চালকের সহকারী জাহাঙ্গীর, শামীম ও আকরামকে। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পুলিশ এ মামলায় গত ১৫ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে।


মন্তব্য