kalerkantho


ওবায়দুল কাদের বললেন

যারা আন্দোলনে ব্যর্থ, তারাই গুমের ঘটনা ঘটাচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



গুম নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের দিকে ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘যারা ৯ বছর আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে, তারাই দেশে গুমের ঘটনা ঘটাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘যারা গণতন্ত্রের মুখোশ পরে আছে তাদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন করতে হবে। বর্বর অপশক্তির বিরুদ্ধে ঘৃণার আগুন ছড়িয়ে দিতে হবে।’ 

গতকাল রবিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির উদ্যোগে ‘বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের খণ্ডচিত্র প্রদর্শনী’তে আলোচনাসভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বে যে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রয়েছে, তাকে রুখতে হবে। তাদের পরাজিত করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে। ২০১৮ সাম্প্রদায়িকতার পরাজয়ের বছর। তাদের পরাজয় হবে; যারা পাকিস্তানি কায়দায় জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, তারা পাকিস্তানি প্রেতাত্মা। এরাই আবার গুম-খুনের কথা বলে। গুমের নাটক সাজায়, গুমের অভিযোগ দিতে দ্বিধা করে না।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দেশে হঠাৎ হঠাৎ লাশ পড়ে থাকে। এর জন্য দায়ী বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বাধীন অপশক্তি। তাদের একজন সুইডেনে বসে কিলিং গ্রুপ নিয়ন্ত্রণ করছে। তার নাম নাহিদ।’ অনেকেই গুম হয়ে ফিরে আসছেন জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এ এলাকার (সেগুনবাগিচা) মাহফুজ বাবু ফিরে আসেননি। তিনি ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন।’

উপকমিটির চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভার শুরুতে ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে বিএনপি-জামায়াতের বর্বরতার চিত্র তুলে ধরা হয়। এর আগে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালায় সংবাদপত্রে প্রকাশিত বিএনপি-জামায়াতের অবরোধের সময়কার নৃশংসতার চিত্র নিয়ে প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন।


মন্তব্য