kalerkantho


রাজশাহী স্বাস্থ্য পরিচালককে হুমকি, অফিস তছনছ

নিয়োগ পেতে ব্যর্থ হয়ে হামলা করানো হয়েছে!

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রাজশাহীর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কক্ষে গিয়ে হুমকি-ধমকি ও আসবাবপত্র তছনছ করেছে স্থানীয় ক্যাডাররা। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রবিবার দুপুরে। খবর পেয়ে পুলিশ যাওয়ার আগেই ওই ক্যাডাররা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। তবে ঘটনার পর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাক্তার আনিসুর রহমান চরম আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

আনিসুর রহমান কালের কণ্ঠকে জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে হঠাৎ করে ৮-১০ জনের একটি দল তাঁর কক্ষে প্রবেশ করে। এরপর তারা পরিচালক কেন রাজশাহীতে যোগদান করেছেন—তা জানতে চেয়ে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল শুরু করে। একপর্যায়ে স্বাস্থ্য পরিচালক প্রতিবাদ করলে ওই ক্যাডাররা তাঁর কক্ষের বিভিন্ন আসবাবপত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে তছনছ করতে থাকে। এমনকি পরিচালকের বসার চেয়ারটিও সরিয়ে দেয়। এরই মধ্যে পরিচালক বিষয়টি প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানালে পরিস্থিতি টের পেয়ে ওই ক্যাডাররা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

পরিচালক আনিসুর রহমান জানান, তিনি গত ৪ জানুয়ারি রাজশাহী বিভাগীয় পরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। এরপর গতকালই তিনি প্রথম অফিস করেন। এই খবর পেয়েই ওই ক্যাডাররা তাঁকে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখানোর জন্য কার্যালয়ে গিয়ে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসে এবং কার্যালয়ের আসবাবপত্র তছনছ করে।

আনিসুর রহমান বলেন, ‘কেউ হয়তো এখানে পরিচালক হিসেবে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর অজ্ঞাতপরিচয় ওই কর্মকর্তার তদবির না শুনে আমাকে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক করায় তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে সন্ত্রাসী পাঠিয়ে আমাকে হেস্তনেস্ত করার চেষ্টা করেছেন। সন্ত্রাসীরা টাকার বিনিময়ে আমার কার্যালয়ে এসে আমাকে হুমকি দিয়ে গেছে।’

এদিকে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, নাটোরের সাবেক সিভিল সার্জন ডাক্তার আব্দুল গনি রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক হিসেবে যোগদানের চেষ্টা করেছিলেন। এর বাইরে সাদেকুল ইসলাম নামের আরেক স্বাস্থ্য কর্মকর্তাও একই পদে আসার জন্য তদবির করেছিলেন। এই দুজনের মধ্যে আব্দুল গনির হয়ে ওই সন্ত্রাসীরা গতকাল রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালককে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসে বলেও একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে বিষয়টি নিয়ে আব্দুল গনির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তা সম্ভব হয়নি।

রাজপাড়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তরে ঝামেলা হচ্ছে খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে কাউকেই পাওয়া যায়নি। পুলিশ যাওয়ার আগেই দুর্বৃত্তরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে। ঘটনার পর স্বাস্থ্য পরিচালকের দপ্তরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।


মন্তব্য