kalerkantho


সুষ্ঠু নির্বাচনের আলামত দেখছি না : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সুষ্ঠু নির্বাচনের আলামত দেখছি না : ফখরুল

বছরের শুরু থেকেই ব্যাপক ধড়পাকড়ের অভিযোগ তুলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো আলামত নেই। গতকাল সোমবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের যৌথ সভা শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় দলের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গত কয়েক দিনে বেআইনিভাবে গ্রেপ্তারের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। দেশনেত্রী যেদিনই কোর্টে যাচ্ছেন, কোনো কারণ ছাড়াই পুলিশ আমাদের ১০০-১৫০ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করছে। গ্রেপ্তার করে আসামি দেওয়া হচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট বারের প্রেসিডেন্ট ও সেক্রেটারিকে, যাঁরা ওই সময়ে ম্যাডামের সঙ্গে কোর্টে থাকেন। আসামি দেওয়া হয়েছে সাবেক ক্যাবিনেট সেক্রেটারি আবদুল হালিমকে। এ পরিস্থিতিতে আমরা এখন পর্যন্ত সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো আলমত দেখতে পাচ্ছি না।’

প্রধানমন্ত্রী গত কয়েক দিনে জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও বিএনপি সম্পর্কে রাজনৈতিক শিষ্টাচারবিবর্জিত বক্তব্য দিচ্ছেন মন্তব্য করে এর নিন্দা জানান ফখরুল। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে এ রকম বক্তব্য প্রদান থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান। ‘জনগণের ভোটে চার বছর অতিক্রম করছি’—প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘৫ জানুয়ারির নির্বাচনে কোনো কেন্দ্রে ৫ শতাংশের বেশি লোক যায়নি। ১৫৪ জনকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। বাস্তবে তিনি প্রধানমন্ত্রী আছেন শুধুই জোর করে, দখলদারিত্বে।’

সংসদের অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের দেওয়া বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘রাষ্ট্রের প্রয়োজনে তিনি সঠিক ভূমিকা নিতে পারছেন না, এটাতে আমরা ব্যথিত হচ্ছি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে, এটা দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এখনো প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতা আবদুস সালাম, রুহুল কবীর রিজভী, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবীর খোকন, ফজলুল হক মিলন, এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি : সংবাদ সম্মেলনের আগে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে প্রয়াত নেতার কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ, আলোচনাসভা, শোভাযাত্রা, রচনা প্রতিযোগিতা, দুস্থদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ, ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্পের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী। ১৮ জানুয়ারি এই কর্মসূচি শুরু হবে।

রিজভী জানান, ১৯ জানুয়ারি জিয়ার জন্মবার্ষিকীর দিন ভোরে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও সারা দেশে সব ইউনিট কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সকাল ১০টায় রাজধানীর শেরেবাংলানগরে প্রয়াত নেতার কবরে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হবে। আগের দিন ১৮ জানুয়ারি ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে দলের পক্ষ থেকে আলোচনাসভা হবে। বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন পোস্টার প্রকাশ করবে। জাতীয় দৈনিকে প্রকাশ করা হবে বিশেষ ক্রোড়পত্র।

মুক্তিযোদ্ধা দল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, শ্রমিক দল, মহিলা দল, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন আলোচনাসভা, শ্রমিক শোভাযাত্রা, শীতবস্ত্র বিতরণ, রচনা প্রতিযোগিতা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীসহ নানা কর্মসূচি পালন করবে।


মন্তব্য