kalerkantho


গোপালগঞ্জে নতুন ঘরের চাবি পেলেন ৪৬ জন গৃহহীন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর, শুকতাইল, চন্দ্রদিঘলীয়া ও পাইককান্দি ইউনিয়নের ৪৬ জন গৃহহীনকে ঘর দিয়েছে সরকার। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গোপীনাথপুর শরীফ পাড়ায় এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উপকারভোগীদের হাতে চাবি তুলে দেওয়া হয়।

‘যার জমি আছে ঘর নেই, তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ’ প্রকল্পের আওতায় এসব ঘর তৈরি করেছে সরকার। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শান্তি মনি চাকমা।

নতুন ঘর পেয়ে সদর উপজেলার চরপাড়া গ্রামের বৃদ্ধ রেবেকা বেগম বলেন, ‘আমার বসবাস করার মতো ঘর ছিল না। শীতে কেঁপে, ঝড়-বৃষ্টিতে ভিজে কাটত জীবন। শেষ বয়সে মনে হয় একটু সুখের মুখ দেখছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ।’

শরীফ পাড়ার মিজানুর রহমান ও ছবর আলী মিয়া বলেন, ‘সরকার আমাদের একটি ঘর দিয়েছে, এখন ছেলে-মেয়ে নিয়ে শান্তিতে বসবাস করতে পারব।’ 

নতুন ঘরের চাবি পেয়ে চন্দ্রদিঘলীয়া গ্রামের স্নেহা বেগম (৬৫), হাবিবুর রহমান, ময়না বেগম বলেন, ‘আমাদের জরাজীর্ণ ঘর ছিল। এখন প্রধানমন্ত্রী ঘর দিয়েছে। শান্তিতে বাস করতে পারব।’

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শান্তি মনি চাকমা সাংবাদিকদের জানান, প্রকল্পের আওতায় তিন হাজার ৯১১ জনের চাহিদা পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি বিভিন্ন ইউনিয়নে আশ্রয়ণ প্রকল্প নির্মাণের প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে গোপালগঞ্জ জেলায় আর একটি পরিবারও গৃহহীন থাকবে না ।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. শাম্মি আকতার বলেন, ‘প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায় ২২৬টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিটি ঘরের সঙ্গে একটি করে টয়লেট রয়েছে।’


মন্তব্য