kalerkantho


উত্তরা আধুুনিক মেডিক্যাল কলেজ

ভর্তি নিয়ে আপিলের রায় আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তি করা ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমে ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের বিরুদ্ধে করা আপিলের শুনানি শেষ হয়েছে। গতকাল সোমবার ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চে শুনানি হয়। শুনানি শেষে আদালত আজ মঙ্গলবার রায়ের জন্য দিন ধার্য করেন।

গতকাল আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন এ এম আমিন উদ্দিন, সরকারপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু এবং মেডিক্যাল কলেজের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস।

রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজে গত বছর ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে মেধাতালিকা অনুযায়ী শিক্ষার্থী ভর্তি না করে ‘আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ’ ভিত্তিতে ভর্তির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৭ ডিসেম্বর সকাল ১১টার মধ্যে ‘আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ’ পাবেন ভর্তীচ্ছুরা।

ওই দিন সকাল ১১টার পর তারিকুল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থী (যার মেধা স্কোর ২৫৭) কলেজে গিয়ে জানতে পারেন, এরই মধ্যে ৫৭ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি সম্পন্ন হয়েছে। ভর্তির সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ২৫০.৪৫। তারিকুলের দাবি, মেধা স্কোর অনুযায়ী ভর্তি করলে তিনিও ভর্তির সুযোগ পেতেন। পরে গত ২ জানুয়ারি তারিকুলের বাবা নজরুল ইসলাম আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের এই ভর্তি পদ্ধতি চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন।

রিটের ওপর প্রাথমিক শুনানি শেষে হাইকোর্ট এরই মধ্যে ভর্তি করা ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। একই সঙ্গে ওই কলেজের ভর্তিপ্রক্রিয়া কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানাতে কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং স্বাস্থ্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতি রুল জারি করেন। ওই আদেশের বিরুদ্ধে উত্তরা মেডিক্যাল কলেজ আপিল করে।


মন্তব্য