kalerkantho


বিয়ের ‘নাটক সাজিয়ে’ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার এক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



বিয়ের নামে ফাঁদে ফেলে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে আলাউদ্দিন আল আজাদ নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। গত সোমবার রাজধানীর নিকেতন এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পিবিআই সূত্রে জানা গেছে, আজাদ ২০১৪ সালের ৯ মার্চ পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহরে ভুক্তভোগীকে ‘বিয়ে’ করেন। তবে পরে বিয়ের কথা অস্বীকার করেন তিনি। সে সময় কাজির কাছে চেয়েও কাগজপত্র পাননি ওই তরুণী। তবে বিয়ের হলফনামার কপি তাঁর কাছে আছে। পরে ২০১৬ সালের ১৬ জুলাই তাঁদের নিয়ে সালিস বৈঠক হয়। তখন আজাদ ‘বৈধভাবে’ বিয়ে নিবন্ধন করে একসঙ্গে থাকার অঙ্গীকার করেন। এরপর তাঁরা বিভিন্ন স্থানে একসঙ্গে থাকেন। পরে ২০১৬ সালের ১০ আগস্ট আজাদ আত্মগোপন করেন। এ ঘটনায় বনানী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগী। গত বছরের ১৪ মে আদালতের আদেশে মামলাটি তদন্ত শুরু করে পিবিআই। পিবিআইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাহ্ উদ্দিন তালুকদার মামলাটি তদন্তের একপর্যায়ে আজাদের অবস্থান শনাক্ত করে তাঁকে গ্রেপ্তার করেন।

পিবিআই ঢাকা মহানগর অঞ্চলের অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার বশির আহমেদ বলেন, ‘এর আগেও আজাদ একাধিক তরুণীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণসহ বিভিন্ন অভিযোগে সাত-আটটি মামলা রয়েছে।’


মন্তব্য