kalerkantho


রোগীর সঙ্গে প্রতারক চক্রের তিন দালালকে কারাদণ্ড, জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



‘পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি হলে রোগীর হাত-পা কেটে ফেলতে হয়’—এমন ভয় দেখিয়ে এক শ্রেণির দালাল রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে নিজেদের ‘পছন্দের’ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করছে। অথচ ওই সব হাসপাতালে বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক টেস্টের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে মেয়াদ উত্তীর্ণ রি-এজেন্ট, অপরিষ্কার মাইক্রোবায়োলজি ল্যাব। এসব অপরাধের দায়ে তিন দালালকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। তারা হলো সেলিম, রনি সিকদার ও শাহরিয়া মতিন। একই সঙ্গে নজরুল ইসলাম নামে অন্য এক দালালকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

গতকাল বুধবার বিকেলে র‌্যাব-২-এর উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম। এই সময় হাসপাতাল তিনটি বন্ধের নির্দেশও দেওয়া হয়।

অভিযানকালে ওই সব হাসপাতালের ওটি রুমের অভ্যন্তরে অত্যন্ত নোংরা, রি-এজেন্ট রাখা ফ্রিজের ট্রের মধ্যে তেলাপোকাসহ মৃত পোকামাকড়, ফ্রিজের সঠিক টেম্পারেচার এবং ল্যাবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত টেকনিশিয়ান না থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে। এ ছাড়া একই এলাকায় মক্কা মদিনা জেনারেল হাসপাতালটির সরকারি বৈধ অনুমোদন না থাকায় তিন দিনের মধ্যে হাসপাতালটি বন্ধ করার নির্দেশ প্রদান করা হয়।


মন্তব্য