kalerkantho


মহেশপুরে শিশু ধর্ষণ ও হত্যা

দুই আসামির ফাঁসির দণ্ড হাইকোর্টে বহাল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ঝিনাইদহের মহেশপুরে সাত বছরের শিশু আলপনা খাতুনকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় দুই আসামির ফাঁসির আদেশ বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর বেঞ্চ ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের করা আপিল মামলার রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো মো. সাইফুল ইসলাম ও মো. আরিফ হোসেন। ২০১১ সালে ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ওই দুই আসামির ফাঁসির আদেশ দেন। একই সঙ্গে মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের জন্য (ডেথ রেফারেন্স) নথি হাইকোর্টে পাঠান। অন্যদিকে আসামিরা নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে। আসামিদের আপিল ও ডেথ রেফারেন্স শুনানি শেষে গতকাল রায় দেওয়া হয়। রায়ে আসামিদের আপিল খারিজ করে দেওয়ার পাশাপাশি মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য বিচারিক আদালতের রায় অনুমোদন দেয়া হয়।

হাইকোর্ট রায়ে বলেছেন, আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। বিচারিক আদালতের রায়ও সঠিক হিসেবে বিবেচিত হয়েছে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মনিরুজ্জামান রুবেল, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল আবুল কালাম আজাদ খান, সৈয়দা সাবিনা আহমেদ ও মারুফা আক্তার শিউলি। আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এস এম শাহজাহান ও আফিল উদ্দিন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৮ সালের জুন মাসে ঝিনাইদহের মহেশপুরে সাত বছরের শিশু আলপনাকে পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে প্রতিবেশী সাইফুল ও আরিফ। আলপনার বাবা তোরাব আলী এ ঘটনায় একই বছরের ২৬ জুন মামলা করেন। ওই মামলায় দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় মহেশপুর থানার পুলিশ। পরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল বাদী ও সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণের পর রায় দেন।


মন্তব্য