kalerkantho


এমপিদের কাছে মহিলা পরিষদের চিঠি

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারীদের এক-তৃতীয়াংশ আসন বরাদ্দের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এক-তৃতীয়াংশ আসন নারীদের জন্য বরাদ্দ রাখার দাবি জানিয়েছে নারী অধিকার সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। একই সঙ্গে সংরক্ষিত আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ করে তাতে সরাসরি নির্বাচনের জন্যও বলা হয়েছে। এ জন্য বাংলাদেশের সংবিধান সংশোধন করার দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

গতকাল বৃহস্পতিবার মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সংবিধানর সংশোধনের খসড়াটি সম্প্রতি প্রত্যেক এমপির কাছে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে এমপিদের সংসদে কথা বলার অনুরোধ করেছে মহিলা পরিষদ।

এমপিদের কাছে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, নারীর রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় যথার্থ প্রতিনিধিত্ব গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার অন্যতম শর্ত। কিন্তু জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়নি এবং সরাসরি নির্বাচনেরও বিধান রাখা হয়নি। উপরন্তু সংরক্ষিত আসন বাড়ানো হয়েছে, যা নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে ইচিবাচক ভূমিকা রাখতে অপারগ। শুধু প্রতীকী অর্থে নারীর ক্ষমতায়ন নয়, স্থায়িত্ব নিশ্চিত করতে প্রয়োজন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অনুসরণ। এমপিদের কাছে পাঠানো চিঠিতে পরিষদের সভাপতি আয়শা খানম বলেন, ‘আমরা জানি, বর্তমানে জাতীয় সংসদে ৫০ জন মনোনীত সদস্য রয়েছেন। বর্তমান দশম সংসদ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই সংরক্ষিত আসনের বিধান বিলুপ্ত হবে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ জাতীয় সংসদে নারী আসনে সরাসরি নির্বাচন, আসন সংখ্যা এক-তৃতীয়াংশ বৃদ্ধি এবং নির্বাচনী এলাকা পুনর্নির্ধারণের লক্ষ্যে একটি খসড়া বিল প্রস্তুত করে জমা দিয়েছে।


মন্তব্য