kalerkantho


লিটনের সময়কার প্রকল্প

‘প্রথম ফ্লাইওভার’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত রাজশাহীবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



যানজটমুক্ত শহর গড়তে প্রথম ফ্লাইওভার ও চার লেনের সড়ক হতে যাচ্ছে রাজশাহীতে। এই প্রকল্প বিশেষ করে ফ্লাইওভারকে কেন্দ্র করে নগরবাসীর মধ্যে দেখা দিয়েছে উচ্ছ্বাস। এদিকে নগরীর বুধপাড়া এলাকায় নির্মাণ হতে যাওয়া ফ্লাইওভারটির পরিকল্পনা হয় ২০১২ সালে।

ওই সময় মেয়র ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক বলেন, ‘চার লেনের সড়ক ও ফ্লাইওভার প্রকল্পটি সাবেক সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের সময়কালেই গ্রহণ করা হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে নানা কার্যক্রম শেষে সম্প্রতি সেটি একনেকে পাস হয়।’

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলীর দপ্তর জানায়, সিটি করপোরেশনের বর্তমান পর্ষদের মেয়াদকালে সবমিলিয়ে প্রায় ২৮০ কোটি টাকার কাজ হয়েছে বা চলমান রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি থোক বরাদ্দ পাওয়া গেছে প্রায় ৭০ কোটি টাকা। বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় পাওয়া গেছে আরো ২১০ কোটি টাকা। তবে বড় বরাদ্দগুলো এসেছে আগের মেয়র লিটনের সময়কালে নেওয়া প্রকল্পগুলোর আওতায়।

এদিকে নগরীর বুধপাড়া এলাকার বাসিন্দা আকবর হোসেন বলেন, ‘লিটনের হাত ধরেই রাজশাহীর উন্নয়ন তরান্বিত হয়েছে। তাঁর উদ্যোগেই রাজশাহীতে ফ্লাইওভার নির্মাণ হচ্ছে। এটি রাজশাহীবাসীর জন্য বড় পাওয়া। লিটনের সময়কালে রাজশাহী নগরীতে যে উন্নয়ন হয়েছে, তা দৃশ্যমান।’

প্রসঙ্গত, চার লেনের সড়ক ও ফ্লাইওভার নির্মাণ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ১৮২ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। এ প্রকল্পের আওতায় মহানগরীর রাস্তার জন্য প্রথম পর্যায়ে ২০ কোটি টাকা এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে সংশোধিত ২৪ কোটি টাকা ব্যয় হবে। ফ্লাইওভার নির্মাণে ২৯ কোটি ২৮ লাখ ৭৭ হাজার ৫৩২ টাকা এবং অবশিষ্ট টাকা জমি অধিগ্রহণ ও ভৌত অবকাঠামো নির্মাণে ব্যয় হবে।


মন্তব্য